ওয়েবসাইট ব্লগে GPL থিমস প্লাগিন ব্যবহার করা কতটুকু নিরাপদ?

ওয়েবসাইট-ব্লগে-GPL-থিমস-প্লাগিন-ব্যবহার-করা-কতটুকু-নিরাপদ

আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগে GPL থিমস প্লগিন ব্যবহার করাটা কতটুকু নিরাপদ আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ এর জন্য, জানেন কি?

ওয়েল আজকের এই আর্টিকেলে আমি আপনার সাথে শেয়ার করব, GPL থিম প্লাগিন কি?

এবং এই GPL থিম প্লাগিন আপনার ওয়েবসাইটে ব্লগে ব্যবহার করাটা কতটুকু নিরাপদ, GPL থিম প্লাগিন ব্যবহার করলে আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ এর কি,কি প্রবলেম হতে পারে?

ওকে তাহলে চলুন বেশি কথা না বাড়িয়ে মেইন আর্টিকেলে মুভ করা যাক!

GPL এর ফুল মিনিং কি?

GPL এর ফুল মিনিং হচ্ছে “জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স” মানে এক কথায় আপনার আমার সবার জন্য উন্মুক্ত।

ধরুন আপনি একটি পপুলার মার্কেট প্লেস থেকে একটি থিম কিনেছেন এবং সেই থিম টি জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স এর আন্ডারে আছে।

তখন আপনি সেই থিম টি ইচ্ছা মত কাস্টমাইজ করতে পারবেন, এক কথায় যা ইচ্ছা তাই করতে পারবেন সেই থিমের সাথে,নতুন করে আপনি থিম মডিফাই ও করতে পারবেন।

এবং অনেক অনেক ওয়েবসাইটে সেই থিম ব্যবহার করতে পারবেন,আর আপনি চাইলে সেই থিম পুররায় বিক্রি ও করতে পারবেন।

তাহলে বুজতে পেরেছেন জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স কি, এবং কিভাবে কাজ করে?

জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স থিম ব্যবহার করাটা কি বোকামি হবে?

এক কথায় উত্তর হ্যাঁ জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স থিম ব্যবহার করা মানে আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ অন্নের সাথে ভাগাভাগি করে নেওয়া, আপনার ওয়েবসাইট এর প্রাইভেসি বলতে কিছুই থাকবে না।

কি বলেন এসব ভাই? হ্যাঁ ভাই আমি ঠিক বলছি।

আপনি অনেক সময় দেখে থাকবেন আপনার সোশ্যাল মিডিয়ার ওয়ালে এমন না না টাইপ এর পোস্ট আসে, নিউজপেপার ৯ থিম এর মূল্য মাত্র এক ডলার, Disto থিম এর মূল্য ২ ডলার।

এরকম পোস্ট থেকে নিজেকে যতটা পারবেন দূরে রাখবেন কেননা, এই থিমস গুলার অরজিনাল মূল্য প্রায় ৫৫/৬০ ডলার এরকম হয়ে থাকে।

তাহলে এতো দামি থিম আপনাকে কিভাবে এক ডলারে দিয়ে দিচ্ছে, আপনি যদি এই প্রস্ন টা তাদের করেন মানে যারা এই থিম টি এক ডলারে বিক্রি করছে তারা!

তারা বলবে এই থিম টি জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স এর আয়তায় তারা বিক্রি করছে, এই জন্য এতো কম দামে তারা সেল করতে পারছে।

হ্যাঁ তারা থিকই বলে থাকে, তবে কি জানেন যে সকল থিম প্লাগিন জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স এর আন্ডারে পাওয়া যায় বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় থিমস গুলা মডিফাই করা থাকে এবং ম্যালিসিয়াস কোড দিয়ে ভর্তি থাকে।

আপনি যদি আমার মত একজন সাধারন মানুষ হয়ে থাকেন তাহলে আপনি কখনই এই কোড গুলি খুজে বের করতে পারবেন না।

একজন থিম ডেভেলপার বা একজন এক্সপার্ট ছাড়া এই কোড গুলি খুজে বের করা আমাদের মত সাধারন পাবলিকের কম্ম নয়।

তাহলে বুজতে পারছেন জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স থিম গুলি ব্যবহার করাটা আপনার জন্য কত্ত বড় বোকামি হতে পারে।

আরও কি কি সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন?

আপনি টাকা খরচ করে একটি ওয়েবসাইট ব্লগ তৈরি করলেন, এবং তারপর আপনি সস্তা থিম কিনে আপনার ওয়েবসাইটে ব্যবহার করলেন।

বেশ ভালই তো চলছে আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ না? না ভালো চলবেনা কিছু দিন পর থেকেই দেখবেন আপনার ওয়েবসাইটে না না রকম প্রবলেম হওয়া শুরু করেছে।

এই যেমন লগিন না হওয়া, আপনি লগিন করতে গিয়ে দেখছেন আপনার ওয়েবসাইটে আপনি লগিন করতে পারছেন না, আপনার ওয়েবসাইটে ঢুকার কিছু খন পর অন্য একটি ওয়েবসাইটে চলে যাচ্ছে।

কখনও আপনার সাইটে ঢুকলে আজে বাজে পিকচার দেখাছে, এরকম নানান হাবিজাবি কর্মকাণ্ড হতেই থাকবে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট এর সাথে।

আর কি ভাবছেন ওয়েবসাইট হ্যাক হয়ে যাবে না তো? আপনি যখনই কম টাকা দিয়ে জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স থিম প্লাগিন এগুলা কিনে আপনার ওয়েবসাইট ব্লগের সাথে কানেক্ট করবেন, তখনই বুঝে নিবেন আপনার ওয়েবসাইটের আর কোন নিরাপত্তা নেই আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ যে কোন সময় হ্যাক হয়ে যেতে পারে।

নিয়মিত আপডেট পাবেন না

একটি থিম বা একটি প্লাগিন এর যারা ডেভেলপার থাকে তাদের একটাই কাজ হয়ে থাকে, তাদের থিম এবং প্লাগিন কে প্রতিনিয়ত ডেভেলপ করে যাওয়া, এবং কোথায় কি বাগ আছে সেগুলা দেখে ফিক্স করা এবং আপডেট করে সেই সকল বাগ ফিক্স করে দেওয়া।

কিন্তু আপনি যখনই সস্তায় জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স থিম ব্যবহার করবেন আপনার থিম প্রতিনিয়ত আপডেট দিতে পারবেন না, আপডেট তো আসবে কিন্তু আপনি আপডেট দিতে পারবেন না।

আপনাকে মেনুয়ালি আপডেট দিতে হতে, এবং মেনুয়ালি আপনি তখনই আপডেট দিতে পারবেন, যখন আপনি যাদের থেকে থিম কিনেছেন তারা যদি আপনাকে আপডেট দেয় তাহলে আপনি মেনুয়ালি আপডেট দিতে পারবেন।

থিম অ্যাক্টিভ করতে পারবেন না, বা অ্যাক্টিভ কোড দেওয়া থাকে না।

দেখুন অনেক সময় আপনাকে কিছুই করতে হবে না, আপনার থিম অটো অ্যাক্টিভ থাকবে বা হয়ে যাবে।

আর অনেক সময় থিম অ্যাক্টিভ ই করতে পারবেন না, আর অ্যাক্টিভ করবেন বা কি করে আপনাকে তো আর অ্যাক্টিভেশন কোড দেওয়া হবে না।

আর আপনি থিম অ্যাক্টিভ না করলে থিমের অনেক কিছুই কাজ করবে না, এবং ওয়েবসাইটের স্পীড এর উপরেও প্রভাব পড়তে পারে।

আপনার ওয়েবসাইটের এসইও উপর খারাপ প্রভাব পড়তে পারে

হ্যাঁ আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ এর এসইও এর উপর খুব খারাপ প্রভাব পড়তে পারে, যদি আপনি এই রকম কমদামি জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স বা নাল থিম ব্যবহার করেন।

কারন এসব থিমে সব কিছু জোর পূর্বক করা হয়ে থাকে, মানে থিম জোর করে অ্যাক্টিভ করে দেওয়া, ম্যালিসিয়াস কোড অ্যাড করে দেওয়া এরকম আরও অনেক কিছু।

আর এই জন্যই আপনার ওয়েবসাইটের এসইও এর উপর খুব খারাপ প্রভাব পড়তে পারে।

আর পড়তে পারে তার মেইন কারন একই থিম কত লোকে মডিফাই করেছে তার কিন্তু ঠিক নেই? যেহেতু এই থিম গুলা জেনারেল পাবলিক লাইসেন্স এর আন্ডারে পাওয়া যায় তাই অনেকেই এই সকল থিম রি-মডিফাই করে, এবং তাদের নিজের কেরামতি দেখায়।

এমত অবস্থায় আপনি কি করবেন?

আমি আপনাকে এটাই সাজেস্ট করবো এসব নাল বা সস্তা থিম ব্যবহার করবেন না, কারন এসব থিম প্লাগিন এর জন্য আপনার গোটা ওয়েবসাইট টাই মাটি হয়ে যেতে পারে।

আপনি প্রথমে ফ্রী থিম প্লাগিন দিয়ে শুরু করুন, তারপর আপনি আস্তে আস্তে গ্রো করলে তখন প্রিমিয়াম থিম কিনে নিবেন।

আর আপনার যদি থিমস বা প্লাগিন নিতেই হয় না নিলে আপনার ওয়েবসাইট তৈরি হচ্ছে না বা আপনার ওয়েবসাইট আপনি যেমন চাচ্ছেন তেমন করতে চাইলে প্রিমিয়াম থিম প্লাগিন নিতেই হবে, তাহলে আমি আপনাকে বলব বড় বড় যেসকল মার্কেট প্লেস আছে আপনি সেখান থেকেই থিম প্লাগিন কিনে তারপর ব্যবহার করুন।

ইমেজ ক্রেডিট; Stephen Phillips Via Unsplash

আপনিও কি আমার মত টেক পোকা? আপনারও কি নতুন নতুন টেকনোলজি বিষয়ে জানতে ভালো লাগে? তাহলে বন্ধু আপনি একদম সঠিক জায়গাতে এসেছেন, কেননা আমি এখানে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন টেক বিষয় গুলি নিয়ে আলোচনা করি, এবং টেকনোলজির জটিল টার্ম গুলিকে আপনাদের সামনে জলের মত সহজ করে উপস্থাপন করার চেষ্টা করি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *