বর্তমান তারিখ:May 25, 2020

ব্লগিং করে অনলাইন ইনকাম করার দারুন কিছু আইডিয়া

বাড়িতে বসে অনলাইন ইনকাম করার কিছু দারুন আইডিয়া

বাড়িতে বসে অনলাইনে ইনকাম করতে চাচ্ছেন কিন্তু বুঝে উঠতে পারছেন না কিভাবে শুরু করবেন? বা আপনার মাথায় তেমন কোনো আইডিয়া আসছে না? চিন্তার কোনো কারন নেই। আমি আপনার সাথে কিছু কুল আইডিয়া শেয়ার করবো। এবং আপনাকে অনলাইনে ইনকাম করার সঠিক পথ দেখিয়ে দিব।

অনলাইন কাজ শুরু করার পূর্বে যে বিষয় টি ধ্যান রাখতে হবে!

অনলাইনে আপনি যে কাজ করতেই যান না কেন? আপনার কাজের প্রতি আপনার ভালবাসা অবশ্যই থাকতে হবে। শুধু টাকার পিছে ভাগলে কিছুই হবে না।

হ্যাঁ, আমি ১০০% সত্যি বলছি। উদাহরণ দিয়ে বলতে গেলে আমি নিজেই অনেক বড় ফেইলার। অনেক ভুল করেছি আমি। এবং আমি শুধুই টাকা ইনকাম করার পিছে দৌড়েছি। ফলাফল আমি কিছুই পাইনি। তবে আমি আমার ভুল থেকে অনেক কিছু শিখতে পেরেছি। এবং সেটাই আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।

আমার চিন্তা ভাবনা ছিল রাতারাতি অনলাইনে কাজ করে অনেক টাকা ইনকাম করা। কিন্তু নিজে কোন কষ্ট করতে পারবো না,ভাবুন একবার?! আমি অন্নেরা যা করছে সেইম কাজ করতাম। অর্থাৎ পুরাপুরি কপি পেস্ট। আমার নিজের কোন নিজস্বটা ছিল না।

আর আমি কিনা চাইতাম অনলাইনে ইনকাম করতে? অবশ্য পরে আমি বিষয় টি বুজতে পারলাম। বাকি যারা আছে তারা কিভাবে কাজ করছে, প্রত্যেকেরই একটি নিজস্বতা আছে। যা আমার নেই, ফলে ফেইলার তো আমাকে হতেই হতো।

আমি অনেক চেষ্টা করার পরও নিজের কাজে নিজের নিজস্বতা আনতে বার্থ হয়েছি। কারন তখনও আমি আমার কাজ কে ভালবাসতে পারি নি। আমার মাথায় তখনও রাতারাতি অনলাইন থেকে ইনকাম করার ভুত যাইনি।

পরিশেষে অনেক বার্থটার পর নিজে উপলব্ধি করতে পারলাম অনলাইন রাতারাতি ইনকাম করা যায়না। এবং নিজের কাজের উপর ভালোবাসা না থাকলে আমি অনলাইনে কোন দিন কিছু করতে পারব না। তবে হ্যাঁ, আমিও ভালবেসেছি, এই যে আমার ভালবাসার ব্লগ ❤️। আমার সবটুকুই আমার ব্লগ।

তাহলে বুজতেই পারছেন নিজের কাজ কে ভালো না বাসতে পারলে কিছুই করা পসেবল না। তাই আপনি যে কাজটি করতে চান, বা করতে চাচ্ছেন দেখুন সেই কাজের উপর আপনার ফিলিং কি? আপনি কাজ টি করার সময় কতটা হ্যাপি থাকেন। এভাবে বুঝিয়ে বলছি তার কারন, আমি চাইনা আপনিও আমার মতো ফেইলার হন।

সবশেষে আপনি আপনার কাজ কে ভালবাসুন, তাহলে দেখবেন সব কিছুই ভালো হচ্চে। দু,একদিন কাজ করার পর আপনি হতাশ হয়ে হাল ছেড়ে দিলে কোন কাজেই সাফল্য পাবেন না। আপনি আপনার কাজ ভালোবাসা দিয়ে করুন সফলতা অবশ্যই পাবেন।

ব্লগিং করে অনলাইন ইনকাম করার দারুন কিছু আইডিয়া

#ব্লগিং

ব্লগিং করে অনলাইনে টাকা ইনকাম করা খুব কষ্টসাধ্য কিছু না। তবে আপনি কিভাবে ব্লগিং করছেন তার উপর নির্ভর করছে, আপনার ব্লগিং ক্যারিয়ার কেমন হবে।

প্রথমেই বলতে চাই ব্লগিং একটি আর্ট। ব্লগিং করার জন্য আপনাকে নিজের ভেতরের আর্টিস্ট কে জাগিয়ে তুলতে হবে। ব্লগিং মানেই যে শুধু লেখালেখি করা, বিষয় টা ঠিক তেমন নয়। হ্যাঁ, লেখালেখি করতে হবে তবে আপনার লেখার মাঝে আপনার নিজস্বতা থাকতে হবে।

আমি অনেকেই দেখেছি ব্লগিং করছে, তবে তাদের নিজেদের কোন নিজস্বতা নেই। অন্নেরা যা করছে তারাও তাই করছে, অর্থাৎ হুবহু কপি। হ্যাঁ, কপি করতেই পারেন! বা আইডিয়া কপি করে লিখতে পারেন তবে আপনার লেখার মাঝে নিজের নিজস্বতা ফুটিয়ে তুলতে হবে।

আপনি খেয়াল করে দেখে থাকবেন অনেক বড় বড় ব্লগার আছে যারা, তাদের প্রত্যেক এরই কিন্তু একটা নিজস্বতা আছে। তারা একই কন্টেন্ট ঘুরিয়ে পেচিয়ে লিখছে উভয়ই। কিন্তু তাদের নিজস্বতার জন্য তারা ক্রিয়েটিভ এবং সাকসেস-ফুল ব্লগার।

কপি আপনিও করুন। তবে সরাসরি কপি করা আইডিয়া পেস্ট না করে নিজের কিছু নিজস্বতা রাখুন। একটু ক্রিয়েটিব হয়ে কাজ করুন।

ব্লগিং করার কিছু কুল আইডিয়া

ব্লগিং এর কথা মাথায় আসলেই, সবাই টেকনিক্যাল বিষয় এর দিকে ঝুকে পরে। কিন্তু কেন? টেকনিক্যাল বিষয় ছাড়াও আরও অনেক ভালো ভালো টপিক আছে। আপনি সে-সব টপিক নিয়ে কাজ শুরু করে দিন।

বর্তমান সময়ে এই টেকনিক্যাল টপিকের উপর কম্পিটিটর অনেক বেশি। আপনাকে টেকনিক্যাল টপিক নিয়ে ব্লগিং করে সাফল্য অর্জন করার জন্য, অনেক বেগ পেতে হবে। যা অনেক কষ্টসাধ্য হয়ে উঠতে পারে আপনার জন্য। ফলে এমন হবে আপনার ব্লগিং করার ইচ্ছা তাই মরে যেতে পারে।

আর এইজন্যই আমি ব্লগিং করার কিছু কুল টপিক/ আইডিয়া শেয়ার করছি

  • মুভি রিভিউ
  • বায়গ্রাফি
  • ওয়েবসাইট রিভিউ
  • আইডিয়া শেয়ারিং
  • ধর্মগ্রন্থ
  • গল্প লেখা

মুভি রিভিউ করাটা টা খুব বেশি কঠিন কিছু বলে আমার মনে হয়না। আর আপনি যদি একজন মুভি লাভার হয়ে থাকেন তাহলে তো কোন কথাই নেই। আপনার জন্য মুভি রিভিউ করা খুবই সহজ হবে। এবং আপনি খুব সুন্দর ভাবেই মুভি রিভিউ করতে পারবেন।

মুভি রিভিউ ব্লগিং করার জন্য আপনার কি কি জানা প্রয়োজন ?

# মুভি রিভিউ

কোন কিছুরই প্রয়োজন নেই। অর্থাৎ আপনার শুধু একটি ব্লগ থাকলেই হবে। আর নিজের নিজস্বতা থাকতে হবে। আপনি মুভি দেখবেন এবং সুন্দর করে রিভিউ করে দিবেন। জাস্ট এতটুকুই।

আহ, বেশ ভালো তো! এটা কোন ব্যাপার নাকি। আমি তো অনায়াসেই তাহলে মুভি রিভিউ ব্লগ করে ফেলতে পারবো। ওয়েট বস, এতটাও সহজ নয় কিন্তু ব্যাপার টা। যেহেতু এখানে মুভি এর কথা আসছে, তাই কপি পেস্ট প্রবলেম কিন্তু থাকছেই।

তবে চিন্তার কারন নেই, এটা তেমন কোন ইসু না। আপাকে শুধু ধ্যান রাখতে হবে, মুভির পিকচার নিয়ে অর্থাৎ মুভির পোস্টার। আরও একটু বুঝিয়ে বলা যাক। ধরুন নতুন একটি মুভি এসেছে, এবং আপনি মুভি টি দেখে ফেলেছেন, এখন আপনি সম্পূর্ণ তৈরি মুভিটি রিভিউ করার জন্য।

কিন্তু মুভি রিভিউ করার জন্য আপনার কাঙ্ক্ষিত মুভির কিছু পোস্টার লাগবে। না হলে আপনি রিভিউ কিভাবে করবেন। প্রবলেম এখানেই হয়। সাধারণত সবাই সরাসরি গুগলে গিয়ে কাঙ্ক্ষিত মুভির নাম লিখে সার্চ করে একটি পিকচার ডাউনলোড করে আর্টিকেল লিখে ফেলে।

আর তার ফলেই প্রবলেম হয় গুগল এডসেন্স নিতে। এবার ভাবুন আপনি এতো কিছু করলেন। কত কষ্ট করলেন একটি মুভি রিভিউ আর্টিকেল লেখার জন্য। কিন্তু এতো কিছু করার পরও আপনি যদি গুগল এডসেন্স না পান, তাহলে আপনার কাজ করাই বৃথা।

আর গুগল এডসেন্স না পেলে আপনি টাকাও ইনকাম করতে পারবেন না। তাহলে কি হল? আমি মুভি রিভিউ করে টাকা ইনকাম কিভাবে করবো? ওয়েল, চিন্তার কোন কারন নেই আপনি মুভি রিভিউ করেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন। এবং তাও গুগল এডসেন্স এর সাথে কাজ করে।

আপনাকে শুধু ধ্যান রাখতে হবে আপনি সরাসরি কোন পিকচার গুগল থেকে ডাউনলোড করে আর্টিকেল লিখবেন না। আর এমনটা করলেও কিছুটা ইডিট করে নিবেন। তাহলেই হবে, তারপর গুগল এডসেন্স পেয়ে যাওয়ার পর কপি পেস্ট করতে পারেন তেমন কোন প্রবলেম হবে না।

# বায়গ্রাফি

বায়গ্রাফি লিখেও কিন্তু ঘরে বসে খুব ভালো টাকা ইনকাম করতে পারবেন গুগল এডসেন্স এর সাথে। তবে এখন অনেক কষ্টসাধ্য একটি বায়গ্রাফি ব্লগ বানিয়ে টিকে থাকা, এবং টাকা ইনকাম করা।

তবে আপনি যদি একটি ক্রিয়েটিভ হয়ে কাজ করতে পারেন তবে ১০০% টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আমি আপনাকে বায়গ্রাফি ব্লগ বানিয়ে কিভাবে কাজ করলে সফলতা পাবেন তার উপর কিছু টিপস দিচ্ছি।

আপনি বায়গ্রাফি লিখবেন যারা নতুন সেলিব্রেটি অর্থাৎ খুব বেশি পপুলার হয়নি এখনো তাদের নিয়ে। আপনি বড়, বড় সেলিব্রেটির বায়গ্রাফি লিখতে যাবেন না। কারন অলরেডি অনেক আর্টিকেল পাবলিশ আছে বড়, বড় সেলিব্রেটির নিয়ে।

তাই জন্য চেষ্টা করবেন নতুন সেলিব্রেটির বায়গ্রাফি লেখার জন্য। যেমন ইন্ডিয়ান বাংলার সিরিয়াল এর অ্যাক্টর দের নিয়ে। আমি অনেক রিসার্চ করে দেখেছি। এই সিরিয়াল সেলিব্রেটি দের চাহিদাও কিন্তু অনেক। অনেকেই অনলাইনে এই সিরিয়াল সেলিব্রেটির নাম পরিচয় বায়গ্রাফি খুঁজে, কিন্তু খুব কম ব্লগ আছে যারা এসব সেলিব্রেটি কে নিয়ে লেখালেখি করে।

এ জন্য আপনি টার্গেট করুন নতুন নতুন অ্যাক্টর দের নিয়ে বায়গ্রাফি লিখতে। আর টা ছাড়া বাংলাতে বায়গ্রাফি লেখালেখি করে এমন ব্লগের সংখাও কিন্তু বেশ কম। তাই আপনার জন্য বাড়িতে বসে টাকা ইনকাম করার বেস্ট ওয়ে হতে পারে বাংলাতে বায়গ্রাফি লেখা।

#ওয়েবসাইট রিভিউ

সাধারনত আমরা ওয়েবসাইট বলতে বুঝি ফেচবুক, ইউটিউব, টুইটার, অর্থাৎ এ সকল সোশ্যাল মিডিয়া কে। তবে এর বাইরেও কিন্তু অনেক ওয়েবসাইট আছে যা আপনার বাস্ততম লাইফ কে আরও সহজ করে তুলতে পারে। আপনার কাজ হবে সেই সব ওয়েবসাইট খুঁজে বের করা, এবং সেসব ওয়েবসাইট এর ব্যাবহারের ভালো দিক, খারাপ দিক তুলে ধরে রিভিউ করা।

শুধু এই ওয়েবসাইট রিভিউ করে এমন অনেক বড়, বড় ব্লগ আছে। তাদের কাজ শুধুই ওয়েবসাইট নিয়ে লেখালেখি করা। এবং সেই ওয়েবসাইট এর ভালো খারাপ দিক নিয়ে আলোচনা করা। আপনিও সেইম কাজ করবেন। শুধু আপনার কাজের ভিতর পার্থক্য এতটুকুই হবে আপনি বাংলাতে ওয়েবসাইট নিয়ে রিভিউ করবেন।

#আইডিয়া শেয়ারিং

পারসনালি আমার মনে হয় না ব্লগিং ফিল্ড এ এর থেকে আর ভালো কোন টপিক আছে, বা থাকতে পারে। এই দেখুন না আমি যেমন আমার আইডিয়া গুলো শেয়ার করছি আপনাদের সাথে। আপনিও চাইলে আপনার আইডিয়া গুলো শেয়ার করতে পারেন। তবে খেয়াল রাখবেন কাউকেই একদম হুবহু কপ করতে যাবেন না।

#ধর্মগ্রন্থ

আজকাল ধর্ম নিয়েও অনেকে লেখালেখি করছে, এবং যারা এই টপিক নিয়ে কাজ করছে তারা খুব ভালো রেসপন্স পাচ্ছে, এবং ভালো ইনকাম ও করছে। আপনিও আপনার ধর্ম নিয়ে লেখালেখি করতে পারেন, এবং খুব ভালো ট্রাফিক ও পাবেন এই টপিক এর উপরে।

#গল্প লেখা

গল্প লেখা বলতে বুঝিয়েছি আপনি নিজে থেকে কিছু লিখবেন। অন্নের লেখা বই থেকে কপি করে লিখবেন না। আপনার যেমন মন চায় আপনি লিখতে পারেন, আপনি ভালোবাসা, মজা, আরও অন্যান্য যে টপিক আছে সে সকল টপিক নিয়ে গল্প বানিয়ে লিখতে পারেন।

ইন্ডিয়ায় এই গল্প অর্থাৎ সাইরি লেখার প্রচলন টা অনেক বেশি। এবং তারা অনেক ভালো টাকা ইনকাম করছে এই গল্প অর্থাৎ সাইরি লিখে। তো আপনিও শুরু করে দিতে পারেন গল্প লেখা।

ব্লগিং নিয়ে আমার কিছু কথা।

ব্লগিং কিন্তু আমি যে কটা টপিক এর কথা বলছি এখানেই শেষ না, এরকম আরও অনেক টপিক আছে, যা নিয়ে আপনি ব্লগিং করতে পারেন। আমি শুধুই নিজের আইডিয়া গুলি আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি। ধন্যবাদ!

আপনিও কি আমার মত টেক পোকা, আপনারও কি নতুন নতুন টেকনোলজি বিষয়ে জানতে ভালো লাগে? তাহলে বন্ধু আপনি একদম সঠিক জায়গাতে এসেছেন, আমি এখানে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন টেক বিষয় নিয়ে আলোচনা করি, এবং টেকনোলজির জটিল টার্ম গুলা আপনার সামনে জলের মত সহজ করে উপস্থাপন করি...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *