বর্তমান তারিখ:May 25, 2020

নতুন ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করতে কত সময়ের প্রয়োজন হয়?

নতুন ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করতে কত সময়ের প্রয়োজন হয়

একটি নতুন ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করাতে ঠিক কতটা সময়ের প্রয়োজন হয়? বা এভাবেও বলা যায় একটি ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করানোর জন্য কতটা সময় লেগে থাকে।

ওয়েল আজকের এই আর্টিকেলে আপনার সাথে শেয়ার করার চেষ্টা করবো একটি নতুন ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করতে ঠিক কতটা সময় লেগে থাকে, এবং একটি ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করার জন্য কি কি বিসয়ের উপর ধ্যান রাখতে হয়।

ওয়েল তাহলে চলুন এখন মেইন আর্টিকেলর দিকে যাওয়া যাক!

একটি ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করাতে কতটা সময়ের প্রয়োজন হয়?

এই প্রস্নের উত্তর আমার থেকে জানবার পূর্বে আপনি আগে নিজেকে প্রস্ন করুন, আপনি ঠিক কত দিনের ভিতর আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট কে রেঙ্ক করাতে পারবেন?

আপনি হয়তবা আমার কথা ঠিক মত বুঝে উঠতে পারেন নি রাইট? ওকে আমি বুঝিয়ে বলছি; দেখুন আপনি যদি আপনার সম্পূর্ণ ডেডিকেশন দিয়ে ব্লগিং করেন তাহলে আশা করি আপনি খুব অল্প দিনের মাঝের আপনার ব্লগ রেঙ্ক করিয়ে ফেলতে পারবেন।

তবে একটি ওয়েবসাইট ব্লগ রেঙ্ক করানো টাও কিন্তু অনেক সহজ কিছু নয়, আপনাকে অনেক কষ্ট করতে হবে একটি ওয়েবসাইট রেঙ্ক করাতে হলে, তারপর আপনি গিয়ে আপনার ওয়েবসাইট রেঙ্ক করাতে পারবেন।

আর হ্যাঁ দেখুন একটি ওয়েবসাইট রেঙ্ক করাতে এক্সজেক্টলি কতটা সময় লাগে, এটা বলা পসেবল নয়; তবে আপনি যদি সঠিক নিয়মে সব কিছু করে জান তাহলে আপনি অবশ্যই খুব অল্প সময়ে আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ রেঙ্ক করিয়ে ফেলতে পারবেন।

একটি ওয়েবসাইট ব্লগ রেঙ্ক করাতে হলে কি কি বিষয়ের উপর ধ্যান রাখতে হবে?

রেগুলারিটি মেইন্টেইন

আপনাকে রেগুলারিটি মেইন্টেইন করতে হবে, অর্থাৎ আপনাকে প্রতিনিয়ত আপনার ব্লগে কন্টেন্ট পাবলিশ করে যেতে হবে, এমন নয় জে আপনি আজ একটি আর্টিকেল লিখলেন এনং কয়েক সপ্তাহ বা কয়েক মাস পরে গিয়ে একটি আর একটি আর্টিকেল লিখলেন; আপনাকে আপনার ব্লগে নিয়মিত কন্টেন্ট পাবলিশ করে যেতে হবে; এটাই হচ্ছে একটি ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করানোর সর্বপ্রথম পদক্ষেপ।

লাইট ওয়েট থিম ব্যবহার করা !

সব সময় চেস্টা করবেন ব্লগে সিম্পিল এবং লাইট ওয়েট থিম ব্যবহার করতে; ওয়েট কি বলেন ভাই, ওয়েবসাইট রেঙ্ক করানোর সাথে থিম এর কি সম্পর্ক আছে??

হা,হা ???? ভাই এখানেই তো অনেক বড় হিসাব, অনেকেই মনে করে থিম একটা ব্যবহার করলেই হবে, সে যাই হোক ফ্রী থিম কিনবা নাল থিম বা GPL লাইসেস আছে এমন থিম; ভাই আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইট ব্লগের জন্য পারফেক্ট থিম ব্যবহার না করেন তাহলে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট রেঙ্ক করতে অনেক অনেক বেশি সময় লাগবে।

সব সময় চেস্টা করবেন এসইও ফ্রেন্ডলি এবং লাইট ওয়েট থিম ব্যবহার করতে, আর সম্ভব হলে টাকা দিয়ে থিম কিনে ব্যবহার করবেন, নাল কিংবা ক্রাক করা থিম ব্যবহার থেকে সর্বদা বিরত থাকুন।

ইউনিক আর্টিকেল লেখা

আপনাকে আপনার ব্লগে খুব সুন্দর সুন্দর আর্টিকেল লিখতে হবে, অর্থাৎ আপনার আর্টিকেলর মান অনেক ভালো হতে হবে; যাতে করে আপনার ব্লগের লেখা আর্টিকেল যে পড়বে সে যেন কিছু শিখতে বা জানতে পারে। অর্থাৎ আপনার ব্লগের লেখা কন্টেন্ট গুলার যেন ভেলু থাকে।

ধরুন আপনি আপনার ব্লগে একটি আর্টিকেল লিখেছেন এবং আমি আপনার ব্লগের কন্টেন্ট পড়ে অনেক উপকৃত হলাম, এবং এর পর থেকে আমি প্রতিনিয়ত অনেক সময় নিয়ে আপনার ব্লগের কন্টেন্ট পড়তে থাকলাম।

এতে করে হবে কি আপনার বাউন্স রেট অনেক কমে যাবে; এবং গুগল তখন আস্তে আস্তে বুজতে পারবে আপনি ভালো কিছু করছেন এবং ধীরে ধীরে আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ রেঙ্ক করা শুরু করবে।

অন পেজ এসইও করা

হ্যাঁ আপনাকে ঠিক ভাবে অন পেজ এসইও টা করতে হবে; আপনি যদি কিভাবে এসইও করতে হয় এটা না জানেন বা না বুঝেন তাহলে আপনি প্লাগিন এর সাহায্য নিতে পারেন; আপনি ওয়ার্ডপ্রেস এর ইয়োস্ট এসইও প্লাগিন টি ব্যবহার করতে পারেন, এই প্লাগিন টি আপনাকে অনেক অনেক ভাবে হেল্প করবে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট অন পেজ এসইও করার জন্য।

অপেক্ষা করা

হ্যাঁ এখন সময় আপনার শুধুই অপেক্ষা করার; আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে এবং ধৈর্য ধরতে হবে, এবং প্রতিনিয়ত আপনাকে আপনার ব্লগিং চালিয়ে যেতে হবে, ভেঙ্গে পড়লে চলবেনা।

দেখুন ভাই আমি আপনাকে একটু বলতে চাই, একটি ওয়েবসাইট বা একটি ব্লগ রেঙ্ক করানো টা কিন্তু মুখের কথা নয়, আপনার ইচ্ছা হল আর আপনি আপনার ওয়েবসাইট রেঙ্ক করিয়ে ফেললেন; একটি ওয়েবসাইট রেঙ্ক করাতে হলে বেশ কিছুটা সময়ের প্রয়োজন।

আপনি চাইলেন আর আপনার ওয়েবসাইট রেঙ্ক করে গেলো এমন হয় না ভাই, অনেকেই বলে মাত্র দু দিনেই ওয়েবসাইট রেঙ্ক করিয়ে নিন, এটা করুন ওঁটা করুন দেখবেন আপনার ওয়েবসাইট দু দিনেই রেঙ্ক করে যাবে। ভাই এসব এর খপ্পরে পড়বেন না!

দেখুন সাধারন ভাবেই একটা হিসাব করুন তো আপনি, আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ এর বয়স সবে মাত্র ক দিন, আর আপনার ব্লগে কন্টেন্ট ও খুব বেশি নেই, এমন অবস্থায় গুগল এর কি মাথা খারাপ হয়েছে যে আপনার ব্লগ রেঙ্ক করিয়ে দিবে, না কখনই না।

সব কিছুর একটা সময় আছে, আপনাকে সময়ের সাথে রেস করে যেতে হবে, আপনি যদি সব কিছু ঠিক মত করে যান তাহলে এমনি আপনার ওয়েবসাইট ব্লগ রেঙ্ক করতে শুরু করবে।

শেষ কথাঃ

আপনি ইউটিউবে সার্চ করলে এমন হাজার হাজার টিউটোরিয়াল পেয়ে পাবেন, দু দিনেই আপনার ওয়েবসাইট রেঙ্ক করিয়ে নিন, এটা করে রাতারাতি অনেক টাকা ইনকাম করে নিন, এসব এর ফাদে নিজেকে একদম ফেলবেন না; তাহলে আপনার ওয়েবসাইট রেঙ্ক করা তো দূরে থাক গুগল এর চোখে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট স্পাম হিসাবে ধরা হবে, আর যদি গুগল একবার আপনার ওয়েবসাইট স্পাম হিসাবে ধরে নেয়।

তাহলে এ জনমে রেঙ্ক করা আর পসেবল নয়, একটু মজা করেই বলছি যদিও; তবে কথাটা ১০০% সত্যি বলছি।

আপনি সঠিক নিয়মে ব্লগিং করে যান, সব কিছু ঠিক মত করতে পারলে; আপনার লেখা কন্টেন্টে যদি দম থাকে তাহলে কিছু দিনের মাঝেই আপনি বুজতে পারবেন আপনার ব্লগ রেঙ্ক করতে শুরু করেছে। এ ছাড়া আমার জানা মনে কোন ওয়ে নেই যে সকল ওয়ে ব্যবহার করে রাতারাতি ওয়েবসাইট ব্লগ রেঙ্ক করিয়ে নেওয়া যায়। ধন্যবাদ ভালো থাকবেন; টা,টা ❤❤

আপনিও কি আমার মত টেক পোকা, আপনারও কি নতুন নতুন টেকনোলজি বিষয়ে জানতে ভালো লাগে? তাহলে বন্ধু আপনি একদম সঠিক জায়গাতে এসেছেন, আমি এখানে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন টেক বিষয় নিয়ে আলোচনা করি, এবং টেকনোলজির জটিল টার্ম গুলা আপনার সামনে জলের মত সহজ করে উপস্থাপন করি...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *