ভিপিএন কি? কেন আপনার অবশ্যই ভিপিএন ব্যবহার করা উচিৎ!

ভিপিএন-কি-কেন-আপনার-অবশ্যই-ভিপিএন-ব্যবহার-করা-উচিৎ

ওয়েল বর্তমান সময়ে এসে, এমন টা হতেই পারে না যে ভিপিএন জিনিস টা কি এটা আপনি জানেন না! বা ভিপিএন এর সাথে আপনার কখনই পরিচই হয়নি। বাট, ওয়েট ধরে নেওয়া যাক আপনি ভিপিএন কি এই সম্পর্কে অল্প কিছু জানেন; ওয়েল দেন নট টু ওরি ব্রাদার, এই আর্টিকেলে ভিপিএন কি? কিভাবে কাজ করে ও কেন আপনার ভিপিএন ব্যবহার শুরু করা উচিৎ সব কিছুই কভার করব। সো চলুন এই আর্টিকেলের মহাবিস্তারিত সমুদ্রে ডুব দেওয়া যাক।

ভিপিএন কি? কিভাবে কাজ করে; আপনার ভাষায় ব্যাখ্যা!

আমি লক্ষ করে দেখেছি অনেক সময় এমন হয়ে যায়, টেকনিক্যাল টার্মে বুঝাতে গিয়ে সব কিছুই গুলিয়ে যায়, অর্থাৎ যারা পড়তে আসে তাদের মাথার উপর দিয়েই সব কিছু চলে যায়; ফলে আর্টিকেলের মাথা মুন্ডু কিছুই বুজতে পারে না। তাই জন্য আমি সর্বদাই চেস্টা করে থাকি টেকনোলজির মারাত্মক কঠিন পেচ ওয়ালা টার্ম গুলা আপনাদের সামনে সহজ থেকে সহজতরও ভাবে উপস্থাপন করার।

ওকে, অনেক টা বক,বক করলাম এখন চলেন ভিপিএন কি ও কিভাবে কাজ করে এটা জেনে আসি। ধরে নেওয়া যাক আপনি কোন একটি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে চাচ্ছেন, এখন আপনি হাজার কয়েক বার ট্রাই করার পরেও দেখলেন আপনি সেই কাঙ্খিত ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে পারছেন না। কিন্তু কেন? কারন টা হয়তবা আপনার ইন্টারনেট প্রোভাইডার ওই কাঙ্খিত ওয়েবসাইট টি ব্লক করে রাখছে। বা অন্য কোন গল্প আছে যার ফলে আপনি আপনার কাঙ্খিত ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে পারছেন না।বাট, এখন কি করার, এই প্রব্লেম এর সমাধান কি?

হুম, সমাধান একটাই ভিপিএন ব্যবহার করতে হবে। ও আচ্ছা তাই বুঝি ভিপিএন ব্যবহার করলে বুঝি আমি যে সকল সাইট আমার ইন্টারনেট প্রোভাইডার ব্লক করে রেখেছে আমি সেই সকল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে পারবো। হ্যাঁ, একদম ঠিক ধরেছেন! আপনি ভিপিএন ব্যবহার করে আপনার ইন্টারনেট প্রোভাইডার সমুহ যে সকল ওয়েবসাইট ব্লক করে রেখেছে আপনি সেই সকল ওয়েবসাইটে একদম নির্ঝামেলায় প্রবেশ করতে পারবেন!


কিভাবে? এখানেই তো আসল গল্প ব্রাদার


আচ্ছা বুঝিয়ে বলছি; ধরে নেওয়া যাক আপনি ভিপিএন ব্যবহার করছেন না; ফলে আপনি অনেক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে পারছেন না! এই প্রসেস টা কাজ করে কিভাবে? সহজ হিসাব, আপনি ঠিক জেভাবে আপনার কম্পিটার থেকে নির্দিষ্ট করে আপনার কাজে লাগে না, বা বাজে ওয়েবসাইট গুলি ব্লক করে রাখেন ঠিক সেভাবেই আপনার ইন্টারনেট প্রোভাইডারগন ও কিছু কিছু ওয়েবসাইট ব্লক করে রাখে। আচ্ছা কিন্তু এই ব্লক করে রাখার রহস্য টা কি? হুম অনেক সময় কিছু কিছু মারাত্মক বাজে ওয়েবসাইট এর জন্য আমাদের কে সামাজিক ও মানসিক ভাবে খতিগ্রস্থ হতে হয়। তাই জন্য আমাদের দেশের তথ্য ও প্রজুক্তি মন্ত্রলায় থেকে সেই সকল ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয় আমাদের ইন্টারনেট প্রোভাইডার কারিদের। আর তার ফলে আমাদের যারা ইন্টারনেট প্রোভাইড করছে; তারা সেই সকল বাজে ওয়েবসাইট গুলি বন্ধ/ব্লক করে দেয়।

বাট সত্য কথা বলতে কি? যে সকল ওয়েবসাইত ব্লক করে দেওয়া হয়, সে সকল ওয়েবসাইট ব্লক করে দেওয়ার মুলত উদ্দেশ্য হচ্ছে; আমরা যারা ইন্টারনেট ব্যবহার করছি; আমাদের কে নিরাপদ রাখা।

আচ্ছা এতো গেল কিভাবে আমাদের ইন্টারনেট প্রোভাইডার রা ওয়েবসাইট গুলি ব্লক করে রাখে সেই বিসয়; কিন্তু এই ভিপিএন কাজ করে কিভাবে? যে ব্লক ওয়েবসাইত গুলি খুলে যায়/ বা ব্লক করা ওয়েবসাইট গুলিতেও প্রবেশ/আক্সেস করা যায়।

হুম, উত্তর হচ্ছে; আমরা যখনি আমাদের ডাটা কানেকশন অন করি তখন কিন্তু আমাদের ইন্টারনেট প্রোভাইডার আমাদের কে নির্দিষ্ট করে একটি আইপি অ্যাড্রেস দিয়ে থাকে। এবং স্বাভাবিক ভাবেই সেই আইপি অ্যাড্রেস এর লোকেশন বাংলাদেশ থাকে, ফলে বাংলাদেশ থেকে যে সকল ওয়েবসাইট ব্লক করা সে সকল ওয়েবসাইটে আমরা প্রবেশ করতে পারি না।

কিন্তু ভিপিএন এর বিসয় টা সম্পূর্ণ ভিন্ন; আপনি ভিপিএন ব্যবহার করে আপনার ইচ্ছা মত একটা কান্ট্রি সিলেক্ট করে, সেই জায়গার আইপি ব্যবহার করে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারেন, ফলে আপনার দেশে যে সক ওয়েবসাইট ব্লক করা; আপনি ইচ্ছা করলে খুব সহজেই সেই সকল ওয়েবসাইটে কোন ঝামেলা ছাড়াই প্রবেশ করতে পারেন।

ভিপিএন কাজ করেই এভাবে, ভিপিএন ব্যবহার করলে আপনি আপনার ইচ্ছা মত লোকেশন চুজ করে তারপর আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারেন। এবং আরও মজার বিষয় হচ্ছে ভিপিএন কিন্তু শুধু মাত্র ব্লক ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতেই কাজে লাগে না, আপনি ভিপিএন ব্যবহার করে আপনার নিয়াপত্তা কয়েক গুন বৃদ্ধি করে নিতে পারেন।

ভিপিএন কেন ব্যবহার করবেন?

দেখুন যদি শুধু মাত্র আপনি চিন্তা করে থাকেন যে; যে সকল ওয়েবসাইট আমাদের দেশে ব্লক করা সে সকল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবার জন্য আপনি ভিপিএন ব্যবহার করতে চান! তাহলে আমি আপনাকে বলব এটা ঠিক না; কেননা যেহেতু এই ওয়েবসাইট গুলি আমাদের দেশে ব্লক করা তার মানে অবশ্যই কোন বাজে বিষয় আছে এই সকল ওয়েবসাইট গুলি নিয়ে তাই জন্য ভুলেও এই সকল ওয়েবসাইটে প্রবেশ না করাটাই বোধ হয় বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

আচ্ছা, এখন আসি কেন আপনার ভিপিএন ব্যবহার করা উচিৎ বা করবেন? ওয়েল, এই প্রশ্নের উত্তর হচ্ছে ইন্টারনেটে আপনার নিরাপত্তা কয়েক গুন ব্রিধি করবার জন্য। হ্যাঁ ভিপিএন ব্যবহার করলে সহজেই কেউ আপনার রিয়েল আইপি বা আপনার রিয়েল লোকেশন খুজে বের করতে পারবে না। না এটা একদমই ভাববেন না যে আপনাকে কোন ভাবেই খুজে পাওয়া পসেবল না। তবে হ্যাঁ, খুব সহজে আপনাকে বা আপনার রিয়েল লোকেশন খুজে বের করা টা সত্যি অনেক টা কষ্টকর যদিনা আপনি ভিপিএন ব্যবহার করেন!

অনেক কিছু মিস করে যাওয়া!

হুম সত্যি তাই; অনেক সময় হয় কি; ফ্রীতে অনেক বড় বড় কম্পানি তাদের প্রোডাক্ট ফ্রীতে দিয়ে থাকে; বা অনেক কম্পানি কুপন ও ফ্রী ভাউচার কার্ড দিয়ে থাকে। কিন্তু সেই সকল ফ্রী প্রোডাক্ট ও কুপন ক্লেম করবার জন্য অবশ্যই আপনার লোকেশন US হওয়া চাই। এখন আপনি কি করবেন? আপনার লোকেশন তো বাংলাদেশ তাহলে? তাহলে আর কি আপনি এই ক্ষেত্রে ভিপিএন ব্যবহার করতে পারেন ও ফ্রীতে কুপন ও ভাউচার কার্ড ক্লেম করতে পারেন। হ্যাঁ, আসলেই তাই; অনেক সময় আমরা অনেক কিছুই মিস করে যাই।

ভিপিএন কি ফ্রীতে পাওয়া যায়!

এক কথায় উত্তর হ্যাঁ ফ্রীতেই আপনি ভিপিএন ব্যবহার করতে পারবেন। তবে হ্যাঁ আপনি যদি ফ্রী ভিপিএন ব্যবহার করেন তাহলে আপনি আপনার ইচ্ছা মত কান্ট্রি চুজ করতে পারবেন না। মানে আপনার যে লোকেশন এর আইপি চাই আপনি সেই লোকেশন এর আইপি দিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন না। যদি আপনি চান আপনার ইচ্ছা মত কান্ট্রি সিলেক্ট করে ইন্টারনেট ব্যবহার করবেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে তার জন্য ভিপিএন কিনে ব্যবহার করতে হবে।

এছারাও আরও কিছু বিষয় আছে; ফ্রী ভিপিএন ব্যবহার করলে আপনার ইন্টারনেট স্পীড তুলনামূলক ভাবে অনেক টা কম পাওয়ার ও সম্ভাবনা থাকে। বাট হ্যাঁ সব ফ্রী ভিপিএন যে বাজে বা কাজের নয়। গল্প কিন্তু তা নয়; ফ্রীতেই অনেক মারাত্মক রকম ভাল কাজের ভিপিএন পাওয়া যায়; এই যেমন আমি পার্সোনালই যে ভিপিএন টা ব্যবহার করি আপনাদের কেও আমি সেই ভিপিএন টা রিকমেন্ড করছি Hotspotshield সত্যি অনেক কাজের এই ফ্রী ভিপিএন টি।

এই ফ্রী ভিপিএন ব্যবহার করলে আপনাকে আপনার ইন্টারনেট স্পীড নিয়ে একটুও কম্প্রমাইস করতে হবে না। এবং মজার ব্যাপার হচ্ছে এই ভিপিএন টা অন্যান্য ভিপিএন এর মত রিসোর্স হাংরি না। ফলে আপনার ডিভাইস টি হাং বা আর পারছি না, এরকম টা কখনই বলবে না। তবে হ্যাঁ, আপনি একটু খুঁজে দেখবেন তাহলে এমন হতেই পারে আপনি এর থেকেও মারাত্মক রকম ভাল কোন ফ্রী ভিপিএন এর সন্ধান পেয়ে যেতে পারেন।

আসা করছি ভিপিএন কি ও কেন ভিপিএন ব্যবহার করবেন এই বিষয় গুলি আপনি বুজতে সক্ষম হয়েছেন।তো সব মিলিয়ে এই ছিল সবকিছু, হ্যাপি লার্ননিং💕💕

ইমেজ ক্রেডিট; By Dan Nelson Via Pexels

আপনিও কি আমার মত টেক পোকা? আপনারও কি নতুন নতুন টেকনোলজি বিষয়ে জানতে ভালো লাগে? তাহলে বন্ধু আপনি একদম সঠিক জায়গাতে এসেছেন, কেননা আমি এখানে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন টেক বিষয় গুলি নিয়ে আলোচনা করি, এবং টেকনোলজির জটিল টার্ম গুলিকে আপনাদের সামনে জলের মত সহজ করে উপস্থাপন করার চেষ্টা করি।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *