গুগল ড্রাইভ কি, গুগল ড্রাইভ ব্যাবহারের নিয়ম

আমরা আজ জানবো গুগল ড্রাইভ কি, গুগল ড্রাইভ থেকে ফাইল বা মিডিয়া কিভাবে ডাউনলোড করে নিতে হয়, এবং গুগল ড্রাইভের সম্পূর্ণ ব্যাবহার সম্পর্কে।

অনেকেই রয়েছে, তারা ইতিপূর্বে গুগল ড্রাইভ সম্পর্কে অবগত। তবে এখনও অনেকেই আছে, যারা গুগল ড্রাইভ কি, কিভাবে গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে হয় এসকল বিষয় সম্পর্কে জানেনা।

তাই জন্যই আমাদের এই আর্টিকেল লিখছি।

আমরা সম্পূর্ণ আরটিকেল জুড়ে আপনার সাথে গুগল ড্রাইভ সম্পর্কিত না,নান তথ্য ও তার সঠিক ব্যাবহারের নিয়ম গুলো তুলে ধরব।

জাতে, গুগল ড্রাইভ সম্পর্কে আপনি বিশেষ ভাবে জেনে নিতে পারেন।

তবে চলুন গুগল ড্রাইভ কি, ও গুগল ড্রাইভ সম্পর্কিত সকল তথ্য গুলো একে, একে জেনে নেওয়া যাক।

গুগল ড্রাইভ কি
গুগল ড্রাইভ কি ও ব্যাবহারের নিয়ম জেনে নিন।

গুগল ড্রাইভ কি ?

গুগল ড্রাইভ এক প্রকার ক্লাউড নির্ভর স্টোরেজ বা যায়গা, যা গুগল থেকে প্রোভাইড করা হয়ে থাকে।

যেমন টা জানেন, আপনি যখন আপনার মোবাইল ফোন অথবা ল্যাপটপ ব্যাবহার করে আপনার ডিভাইজের লোকাল স্টোরেজে ফাইল, ছবি, ভিদিও, ডকুমেন্ট ইত্যাদি রেখে থাকেন।

এটা কিন্তু এক প্রকার স্টোরেজ, যা আপনি লোকালি ব্যাবহার করতে পারেন।

অর্থাৎ যদি আপনার ডিভাইজের স্টোরেজ কোন ভাবে নষ্ট বা কাজ করা বন্ধ করে দেয়, তখন আপনার রেখে দেওয়া ছবি, ফাইল, ভিডিও, ডকুমেন্ট ইত্যাদি আর কখনও ফিরে না পাওয়ার সম্ভাবনা রয়ে যায়।

কিন্তু গুগল ড্রাইভ হচ্ছে ক্লাউড নির্ভর তথ্য সংরক্ষণ করে রাখার স্টোরেজ বা যায়গা।

আরও সহজ করে বললে, আপনি যেমন আপনার লোকাল ডিভাইজে তথ্য গুলো রেখে থাকেন, ফলে তা নষ্ট বা কাজ না করার ভয় থেকে থাকে।

তবে গুগল ড্রাইভে তেমন নয়, গুগল ড্রাইভ আপনার রাখা তথ্য গুলো কোন ফিজিক্যাল স্টোরেজে রেখে থাকে না।

বরং গুগল ড্রাইভ আপনার তথ্য তাদের নিজস্ব সার্ভারে রেখে থাকে। ফলে তা নষ্ট বা কাজ না করার কোন ভয় থাকে না।

আমি সহজ ভাবে বলার চেষ্টা করছি।

গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করে ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে, আপনার ছবি, ফাইল, ভিডিও, ডকুমেন্ট ইত্যাদি তত্থবলি রেখে নিতে পারবেন।

ও তা পরবর্তীতে ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে মোবাইল বা ল্যাপটপ ইত্যাদি ডিভাইজ থেকে আপনার রেখে দেওয়া তথ্য পেতে পারবেন খুব সহজেই।

তাহলে আশা করছি গুগল ড্রাইভ কি তা সম্পর্কে আপনি বুঝে নিয়েছেন।

গুগল ড্রাইভ কি নিরাপদ ?

অবশ্যই গুগল ড্রাইভ সব থেকে বেশি নিরাপদ ও সুরক্ষিত। কেননা গুগল ড্রাইভ টেক জাইন্ট গুগল থেকে প্রোভাইড করা হয়ে থাকে।

এবং যেমন জানেন, গুগল তাদের সিকিউরিটির উপর প্রচুর নজর রাখে।

ফলে আপনি সম্পূর্ণ ভাবে এটা ভাবতে পারেন যে, গুগল ড্রাইভ ১০০% নিরাপদ।

এখানে আপনার তথ্য রেখে তা সব সময়ের জন্য, নিরাপদে রেখে নিতে পারবেন।

তবে জেনে রাখুন, যদি আপনার গুগল একাউন্ট কখনও হ্যাক হয়ে থাকে – কেবল তখনই আপনার গুগল ড্রাইভ নিরাপদ নয়।

কেননা, গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে চাইলে আপনার অবশ্যই একটি গুগল একাউন্টের প্রয়োজন পড়বে।

আর যেহেতু, গুগল একাউন্ট ছাড়া গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করা যায় না।

ফলে বুজতেই পারছেন, গুগল একাউন্ট হ্যাক হয়ে গেলেই কেবল, আপনার গুগল ড্রাইভ নিরাপদ নয়।

নিজের গুগল একাউন্ট নিরাপদ রাখতে অবশ্যই টু স্টেপ অথেন্টিকেশন ব্যাবহার করুণ।

গুগল ড্রাইভ কিভাবে ব্যবহার করব ?

গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই একটি জিমেইল একাউন্ট বা গুগল একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে।

অতঃপর আপনার তৈরি কাঙ্খিত গুগল একাউন্টে লগিন করে গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে পারবেন।

গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে আপনার ব্রাউজারের সার্চবারে লিখুন google.com/drive তবে দেখবেন আপনি গুগল ড্রাইভে প্রবেশ করে নিয়েছেন।

এছারাও, গুগল ড্রাইভে কিভাবে নিজের ছবি, ফাইল, মিডিয়া ইত্যাদি রাখতে হয় তা সম্পর্কে নিচে বিস্তারিত ভাবে আপনাকে দেখিয়ে দেওয়া হবে।

গুগল ড্রাইভ ডাউনলোড করুণ

যদি আপনি মোবাইল থেকে গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে চান। তবে অবশ্যই আপনাকে গুগল ড্রাইভ অ্যাপস ডাউনলোড করে নিতে হবে।

কেননা গুগল ড্রাইভ মোবাইল থেকে ব্যাবহার করে নেওয়ার জন্য, বা সহজে গুগল ড্রাইভে ফাইল সংরক্ষণ করে নেওয়ার জন্য গুগল ড্রাইভ অ্যাপস আপনার প্রচুর কাজে আসবে।

কিভাবে গুগল ড্রাইভ ডাউনলোড করতে হয় ?

স্টেপ ১,- আপনাকে প্রথমে গুগল প্লে-স্টোরে একটি একাউন্ট তৈরি করে নিতে হবে। যা আপনি খুব সহজেই করে নিতে পারবেন আপনার ইমেইল, বা গুগল একাউন্ট থেকে।

অর্থাৎ আপনার কাছে একটি গুগল একাউন্ট থাকলেই আপনি প্লে-স্টোর থেকে গুগল ড্রাইভ অ্যাপস ডাউনলোড নিতে নিতে পারবেন।

স্টেপ ২,- প্লে-স্টোরে যাওয়ার পর, সার্চ বারে লিখুন google drive অতঃপর আপনার সামনে গুগল ড্রাইভ অ্যাপ টি চলে আসবে।

তখন তা ইন্সটাল করে নিতে হবে।

এবং যদি আপনি ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে চান, তবে তার জন্য একটি ব্রাউজারের প্রয়োজন পড়বে।

এই জন্য যে কোন ব্রাউজার ওপেন করে, আপনার জিমেইল একাউন্ট বা গুগল একাউন্ট দিয়ে লগিন করে নিতে হবে।

অতঃপর ব্রাউজারের সার্চবারে লিখতে হবে drive.google.com এবং তারপর কম্পিউটারে গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করতে পারবেন।

গুগল ড্রাইভে ছবি রাখার নিয়ম?

গুগল ড্রাইভে ছবি, ফাইল, মিডিয়া ইত্যাদি রাখার নিয়ম অতান্ত সহজ। যদি মোবাইল থেকে গুগল ড্রাইভে ছবি, ফাইল ইত্যাদি রেখে নিতে চান।

তার জন্য আপনাকে গুগল ড্রাইভ অ্যাপ ওপেন করতে হবে। অতঃপর যখন আপনার সামনে গুগল ড্রাইভ অ্যাপ ওপেন হয়ে যাবে।

তখন নিচে দেখে থাকবেন একটি (+ প্লাস আইকন) রয়েছে। তখন ওই + প্লাস আইকনে ক্লিক করতে হবে, ক্লিক করার পর মুহূর্তেই দেখবেন আপনার মোবাইলের ফাইল ম্যানেজারে পৌছে গিয়েছেন।

এখন আপনি আপনার কাঙ্খিত ছবি, ফাইল বা মিডিয়া নির্বাচন করে দিন। ও তারপর কিছু সময় অপেক্ষা করতে হতে পারে।

কত সময় অপেক্ষা করতে হবে, তা নির্ভর করে আপনার ইন্টারনেট সংযোগের স্পীড ও আপনি কেমন সাইজের ফাইল আপলোড করছেন তার উপর।


এখন চলুন জেনে নেওয়া যাক, কিভাবে কম্পিউটার ব্যাবহার করে ছবি বা ফাইল গুগল ড্রাইভে রাখা যায়।

প্রথমেই আপনাকে একটি ইন্টারনেট ব্রাউজার ওপেন করে নিতে হবে, ও তারপর গুগল ড্রাইভে প্রবেশ করতে হবে।

গুগল ড্রাইভে ছবি রাখার নিয়ম
গুগল ড্রাইভে ছবি রাখার নিয়ম

এবার আপনাকে New অপশনে ক্লিক করতে হবে, তারপর আপনার সামনে দেখবেন আরও কিছু অপশন এসেছে।

  • 1. Folder :- এই অপশন নির্বাচন করে আপনি ইচ্ছা,মত করে ফোল্ডার তৈরি করে নিতে পারবেন। অতঃপর আপনার মত, মত ফোল্ডারে ফাইল, মিডিয়া, ডকুমেন্ট ইত্যাদি রাখতে পারবেন।
  • 2. File upload :- এই অপশন নির্বাচন করে আপনি কোন ফোল্ডার তৈরি ছাড়াই, ছবি, ফাইল, মিডিয়া, ডকুমেন্ট ইত্যাদি গুগল ড্রাইভে রাখতে পারবেন।
  • 3. Folder upload :- এই অপশন নির্বাচন করে, আপনি সরাসরি একটি ফোল্ডার ধরেই গুগল ড্রাইভে রেখে দিতে পারবেন।

গুগল ড্রাইভ কি, গুগল ড্রাইভ ব্যাবহারের নিয়ম

দেখুন আমি দ্বিতীয় অপশন অর্থাৎ, File upload অপশন নির্বাচন করে কাঙ্খিত ছবিটি গুগল ড্রাইভে রেখে নিয়েছি।

ঠিক একই ভাবে আপনিও আপনার ছবি, ফাইল, ডকুমেন্ট ইত্যাদি খুব সহজেই গুগল ড্রাইভে রেখে নিতে পারবেন।

গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড

গুগল ড্রাইভ থেকে ছবি, ফাইল, মিডিয়া, ডকুমেন্ট ইত্যাদি ডাউনলোড করে নেওয়ার প্রক্রিয়া অতান্ত সহজ , যা খুব সহজেই আপনি করে নিতে পারবেন।

যদি আপনি মোবাইল ব্যাবহার করে গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড করতে চান। তবে প্রথমে আপনাকে গুগল ড্রাইভ অ্যাপ ওপেন করে নিতে হবে।

অতঃপর আপনি যে ছবিটি ডাউনলোড করতে চান, তার উপর কিল্ক করতে হবে।

তখন দেখবেন আপনার সামনে কাঙ্খিত ছবিটি ওপেন হয়ে যাবে।

গুগল ড্রাইভ কি, গুগল ড্রাইভ ব্যাবহারের নিয়ম

এবং উপরে দেখবেন একটি 📥 ডাউনলোড আইকন। অতঃপর ডাউনলোড আইকনে ক্লিক করতে হবে।

তবে দেখবেন আপনার কাঙ্খিত ছবি ডাউনলোড হয়ে যাবে।

এবং যদি আপনি মোবাইল থেকে অন্যান্য ফাইল, মিডিয়া, ডকুমেন্ট ডাউনলোড করে নিতে চান।

তবে কাঙ্খিত ফাইল এর নিচের দিকে, একটি (→ ⋮ থ্রি-ডট আইকন) পাবেন, এবং আপনাকে ওই আইকনে কিল্ক করে নিতে হবে।

ও তারপর নিচে দেখবেন, ফাইল টি ডাউনলোড করার জন্য অপশন দেওয়া রয়েছে। যেখানে ক্লিক করে দেওয়া মাত্রই কাঙ্খিত ফাইল ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে।


এবং যদি আপনার ল্যাপটপ বা কম্পিউটার ব্যাবহার করে গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড করার প্রয়োজন পড়ে, তবে তাও অতান্ত সহজ প্রক্রিয়া।

আপনাকে যে কোন একটি ব্রাউজার ওপেন করে নিতে হবে। অতঃপর গুগল ড্রাইভে প্রবেশ করতে হবে।

গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড
গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড

তারপর আপনার কাঙ্খিত ফাইলের উপর মাউসের রাইট বাটন ক্লিক করতে হবে। অতঃপর দেখবেন আপনার সামনে নিচে কাঙ্খিত ফাইল, ছবি, মিডিয়া, ডকুমেন্ট, ইত্যাদি ডাউনলোড করার অপশন চলে আসবে।

এখন আপনাকে শুধু ডাউনলোড বাটনের উপর কিল্ক করতে হবে। তবে দেখবেন সাথে সাথেই আপনার কাঙ্খিত ফাইল ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে।

গুগল ড্রাইভ আনলিমিটেড স্টোরেজ

গুগল ড্রাইভ আপনাকে ফ্রিতে ব্যাবহার করবার জন্য প্রতিটা গুগল একাউন্টের সাথে ফ্রী ১৫জিবি করে ক্লাউড স্টোরেজ দিয়ে থাকে।

যা একজন সাধারন ইন্টারনেট ইউজারের কাছে অনেক বেশি।

তবে অনেকেরই ১৫ জিবি গুগল ড্রাইভের ফ্রী যাওয়া তে কাজ হয় না। যার দরুন অনেকেই রয়েছে তারা গুগল ড্রাইভে আনলিমিটেড স্টোরেজ খুঁজে থাকে।

জেনে রাখুন, যদি আপনি গুগল ড্রাইভ থেকে আনলিমিটেড স্টোরেজ ব্যাবহার করতে চান। তবে তার জন্য আপনাকে অবশ্যই গুগল ড্রাইভের পেইড সার্ভিসের সাথে যেতে হবে।

ফ্রিতে গুগল আপনাকে শুধু মাত্র ১৫ জিবি ক্লাউড স্টোরেজই দিয়ে থাকে, তার বেশি নয়।

আরও জেনে রাখুন, যদি আপনি গুগল ড্রাইভের পেইড সার্ভিস ব্যাবহার না করে। অন্য ভাবে আনলিমিটেড গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার করে থাকেন।

তবে তা আপনার ভুল হবে, কেননা তখন আপনার গুগল ড্রাইভে রাখা ফাইল, মিডিয়া, ছবি, ডকুমেন্ট ইত্যাদি কখনই সুরক্ষিত থাকছে না।

যার জন্য, আপনার গুগল ড্রাইভে রাখা ফাইল পর্যন্ত হ্যাক হতে পারে।

তাই জন্য কখনই ফ্রি আনলিমিটেড গুগল ড্রাইভ ব্যাবহার বা খুঁজতে যাবেন না।

আবারও বলছি, যদি আপনার গুগল ড্রাইভের আনলিমিটেড স্টোরেজের প্রয়োজন হয়। তবে অবশ্যই গুগল ড্রাইভের পেইড সার্ভিস ব্যাবহার করুণ।

Bottom Line

সম্পূর্ণ আরটিকেলে আমরা আপনার সাথে গুগল ড্রাইভ কি, কিভাবে গুগল ড্রাইভ থেকে ডাউনলোড করতে হয় ও গুগল ড্রাইভ সম্পর্কিত বিস্তারিত তুলে ধরেছি।

আমরা আশা রাখছি, এই আর্টিকেলে আপনি যথেষ্ট উপক্রিত হবেন, ও গুগল ড্রাইভ সম্পর্কে আপনি বিস্তর জেনে নিতে পেরেছেন।

তাহলে আজ এ পর্যন্তই, এবং যদি আপনার গুগল ড্রাইভ সম্পর্কে আরও কিছু প্রশ্ন রয়েছে তবে তা নিচে কমেন্ট করে আমাদের জানাতে পারেন।

Hi, i'm Akash Golder, Author & founder of LarnBD , A blog that provides authentic information regarding technology, blogging, SEO, online earn money, how to guide & much more.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *