কিভাবে একটি ওয়েবসাইটের সকল ইনফরমেশন খুঁজে বের করবেন?

ওয়েবসাইটের সকল ইনফরমেশন

কখনও কখনও আমাদের একটি ওয়েবসাইটের সকল ইনফরমেশন খুঁজে বের করে নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে থাকে।

তবে আপনার জানা আছে কি, কিভাবে যে কোন ওয়েবসাইটের সকল কিছু খুব সহজেই খুঁজে বের করা নেওয়া যেতে পারে?

যেমনঃ-

  • যে কোন ওয়েবসাইটের Rank করা কিওয়ার্ড গুলো কি?
  • ওয়েবসাইট কোথায় Host করা হয়েছে?
  • ওয়েবসাইটে কি Theme/plugin ব্যবহার করা হয়েছে?
  • ওয়েবসাইটের বয়স কতদিন?
  • ওয়েবসাইটের স্পাম স্কোর কত?
  • ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংক সম্পর্কে
  • ওয়েবসাইটের স্পীড কেমন?
  • ওয়েবসাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি কিনা?
  • ওয়েবসাইট সিকিউর কিনা?
  • ওয়েবসাইটে কত ভিসিটর হয়

ইত্যাদি, ইত্যাদি।

আপনি একজন নতুন ব্লগার হয়ে থাকলে আপনার অবশ্যই আপনার কম্পিটিটরের উপরে এভাবে নজর রেখে যাওয়া অতান্ত বুদ্ধিমানের কাজ।

তা ছাড়াও, আপনি চাইলে মুহুরতেই মাঝেই ইন্টারনেটে অবস্থিত যে কোন ওয়েবসাইটের উপরে বর্ণীত সকল বিষয় বস্তু সম্পরকে খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন।

কিভাবে একটি ওয়েবসাইটের সকল Informetion খুঁজে বের করতে হয়?

বর্তমান সময়ে ইন্টারনেটে এতো এতো বেশি ওয়েবসাইট তৈরি হচ্ছে, যা সম্পর্কে নতুন করে কিছু বলার থাকছে না।

হতে পারে, তার মাঝে আপনিও সখের বসে অথবা প্রফেসনাল ব্লগিং করবার জন্য একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিয়েছেন।

তবে আপনি কিছুই বুঝে উঠতে পারছেন না, কিভাবে কি শুরু করা বুদ্ধিমানের কাজ হবে?

কেননা বর্তমান সময়ে ব্লগিং ফিল্ডে বা অনলাইনে ভাল কিছু করতে চাইলে প্রচুর কম্পিটিটরের সম্মুখিন হতে হবে।

জার জন্য, আপনার প্রয়োজন প্রচুর জ্ঞান।

যা আপনি রিসার্চ করেই পেতে পারবেন।

মার্কেটে অনেক পেইড টুলস রয়েছে যা ব্যবহার করে একটি ওয়েবসাইটের সকল কিছু একদম খুব সহজেই বের করে নেওয়া যেতে পারে।

তবে এই আর্টিকেলে আমরা দেখব, কিভাবে সম্পূর্ণ ফ্রিতে যে কোন ওয়েবসাইটের প্রায় সকল ইনফরমেশন গুলো সহজেই বের করে নেওয়া যায়।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক, কিভাবে একটি ওয়েবসাইটের সকল Information বের করতে হয় তা সম্পর্কে।

১. ওয়েবসাইটের Rank করা কিওয়ার্ড গুলো  

যে কোন ওয়েবসাইটরের Rank করা কিওয়ার্ড গুলো খুঁজে পেতে আমাদের প্রচুর বেগ পেতে হয়। কিছু সময় তার জন্য পেইড টুললসের নির্ভরযোগ্য হয়ে থাকতে হয়।

কিন্তু আপনি জেনে অবাক হবেন, একটি ওয়েবসাইটের rank করা কিওয়ার্ড গুলো খুঁজে বের করা নেওয়া খুবই সহজ ও এই সম্পূর্ণ বিষয় টা ফ্রিতে করে নেওয়া সম্ভব।

এবং তা শতভাগ নির্ভুল ও সঠিক।

কেননা এই ফ্রি টুলস টি আপনাকে অন্যতম সেরা search engine google থেকে provide করা হচ্ছে।

ফলে বুজতেই পারছেন, কিভাবে আপনাকে একটি ওয়েবসাইটের সকল Rank করা কিওয়ার্ড গুলো নির্ভুল ভাবে দেখাতে পারছে।

এখন কথা হচ্ছে, আপনি কিভাবে যে কোন ওয়েবসাইটের rank করা কিওয়ার্ড গুলো Google এর দেওয়া টুলসের মাধ্যমে দেখে নিবেন?

তার জন্য আপনাকে এই ads.google.com/aw/keywordplanner কিল্ক করে নিতে হবে।

তারপর এখানে আপনার Google account এর সাহায্যে একটি কয়েকটি স্টেপ সম্পূর্ণ করে নিতে হবে যা খুবই সহজ।

অতঃপর আপনার সামনে এমন একটি ইন্টারফেচ আসবে।

asdfasf

এবং মজার বিষয় হচ্ছে আপনি এই টুলস টি ব্যবহার করে অন্য ওয়েবসাইটের rank করা কিওয়ার্ড গুলো তো দেখে নিতে পারবেনই।

সাথে আপনি Google keywordplanner টুলসের মাধ্যমে কিওয়ার্ড রিসার্চ ও করে নিতে পারবেন।

keywordplanner free keyword research tools

যে কোন ওয়েবসাইটের rank করা কিওয়ার্ড গুলো সম্পর্কে জানতে Google keywordplanner টুলসে গিয়ে Start With a website নামের অপশনে কিল্ক করে নিবেন।

তারপর নিচে আপনি যে ওয়েবসাইটের কিওয়ার্ড সম্পর্কে জানতে চান তার Url address দিন।

এবং নিচে নির্বাচন করে নিন Use the entire site,

এবং আপনি যদি বাংলাদেশের কোন সাইটের rank করা কিওয়ার্ড গুলো জেনে নিতে চান, তবে Location Bangladesh দিতে হবে ও Language Bangla করে Get results কিল্ক করুন।

ব্যাস, এখন দেখবেন নিচে আপনাকে কাঙ্খিত ওয়েবসাইটের rank করা সকল কিওয়ার্ড গুলো দেখিয়ে দেওয়া হবে।

২. ওয়েবসাইট কোথায় Host করা হয়েছে? 

কিছু সময় আমাদের অন্যর ওয়েবসাইটের Server location বা কোথায় ওয়েবসাইট টি Host করা হয়েছে তা জেনে নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে।

কেননা কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে যা প্রচুর ফাস্ট, বা বলা চলে সেই ওয়েবসাইট Server প্রচুর ফাস্ট।

ফলে যদি আপনিও কাঙ্খিত ওয়েবসাইটের মত করে নিজের ওয়েবসাইট ফাস্ট করতে চান, তার জন্য আপনাকে তেমন ভাল ফাস্ট Server নির্বাচন করে নিতে হবে।

কিন্তু একজন নতুন Website Owner এর কাছে এই সম্পূর্ণ প্রসেস টা খুব কঠিন। কেননা নতুনদের Hosting নির্বাচন করতে প্রচুর বেগ পেতে হয়।

তাই জন্য যদি আপনি অন্য কোন ওয়েবসাইটের Hosting location খুঁজে বের করতে চান বা তার Hosting server সম্পর্কে জানতে চান।

তবে তা খুব সহজেই জেনে নিতে পারবেন।

আপনাকে প্রথমে Hostingchecker.com এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।

Hosting checker

অতঃপর আপনি যে ওয়েবসাইটের Hosting সম্পর্কে জানতে চান তার Url address type করুন, ও Find host লেখার উপরে ক্লিক করুন।

আন্ড বুম, দেখবেন আপনার সামনে কাঙ্খিত সার্চ করা ওয়েবসাইটের Hosting সম্পর্কিত সকল কিছু দেখিয়ে দিবে।

৩. ওয়েবসাইটে কি Theme/plugin ব্যবহার করা হয়েছে? 

এমন অনেক সময় হয়ে থাকে আমাদের একটি ওয়েবসাইটের ডিজাইন প্রচুর ভাল লেগে যায়, ও আমরা কাঙ্খিত ওয়েবসাইটের মত করে নিজের ওয়েবসাইট ডিজাইন করতে চাই।

তবে সমস্যার শুরু হয় তখন, যখন আপনি প্রচুর খোঁজাখুঁজির পরেও কাঙ্খিত Theme/plugin সম্পর্কে অবগত হতে পারেন না।

তবে তার জন্য আপনার কাছে একটি খুব সহজ উপায় রয়েছে, যা ব্যাবহারের মাধ্যমে আপনি অতি সহজে যে কোন wordpress website এর Theme/plugin খুঁজে বের করে নিতে পারবেন।

যে কোন ওয়েবসাইটে কি Theme/plugin ব্বাওহার করা হয়েছে তা সম্পর্কে জানতে wpthemedetector.com এই লিঙ্কে কিল্ক করে নিতে হবে।

ও তারপর আপনি যে ওয়েবসাইটের Theme/plugin সম্পর্কে জানতে চান, তার Url address দিতে হবে।

wpthemedetector

দেখুন আমাদের ব্লগে যে theme ব্যবহার করা হয়েছে, এখানে তা দেখিয়ে দিয়েছে।

ও নিচে একটি স্কোল করে গেলে আপনি আমাদের ব্লগে কি,কি Plugin ব্যবহার করা হয়েছে তা দেখিয়ে দিবে।

wordpress website plugin checker tools

দেখুন আমাদের ব্লগে যে কয়েকটি Plugin ব্যবহার করা হয়েছে, তা সম্পর্কে এখানে দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে।

তাহলে বুজতে পেরেছেন, একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে কি Theme/plugin ব্যবহার করা হয়েছে, তা বের করা কততা সহজ।

৪. ওয়েবসাইটের বয়স কত দিন? 

অনেক সময় আমাদের অন্যান্য ওয়েবসাইট যেমন ব্লগ বা কম্পিটিটরের সাইট সম্পর্কে জানার জন্য, ওয়েবসাইটের বয়স প্রভিতি দেখে নেওয়ার দরকার পড়ে।

জদিও এটা যে খুব বেশি কঠিন তা কিন্তু নয়। অর্থাৎ যে কোন ওয়েবসাইটের বয়স দেখে নেওয়া খুবই সহজ।

তবে নতুনেরা অনেক সময় এ সম্পর্কে নাও জেনে থাকতে পারে।

তবে আপনি জেনে রাখুন একটি ওয়েবসাইটের বয়স খুঁজে বের করাটা অতান্ত সহজ একটি বিষয়।

যে কোন ওয়েবসাইটের বয়স খুঁজে বের করবার জন্য আপনাকে iplocation.net/domain-age এই লিংকে কিল্ক করে নিতে হবে।

ও তারপর কাঙ্খিত ওয়েবসাইটের Url address বা Domain name দিতে হবে।

domain age checker

দেখুন আমাদের ব্লগের বয়স ও আমাদের Domain টি কত তারিখে registration করা হয়েছে তা এখানে দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এবং আর মজার বিষয় হচ্ছে, আপনি এই ওয়েবসাইট থেকে যে কোন আইপি অ্যাড্রেস থেকে Location,ISP,Proxy,Platform,Browser,User Agent সহ আরও অনেক বিসয়ে জেনে নিতে পারবেন।

৫. ওয়েবসাইটের স্পাম স্কোর কত? 

ওয়েবসাইটের স্পাম স্কোর বলতে সহজ ভাষায় বুঝায় একটি ওয়েবসাইট কতটা বিশ্বাসযোগ্য, বা অবিশ্বাসযোগ্য।

এখানে ওয়েবসাইটের স্পাম স্কোর নিয়ে বেশি কথা বলছি না, এই টপিক টা অন্য কোন আর্টিকেলের জন্য তুলে রাখছি।

কেননা স্পাম স্কোর নিয়ে আমাদের মাঝে প্রচুর রকম বাজে ভুল ধারনা রয়েছে, যা এখানে লিখে বুঝিয়ে দেওয়া সম্ভব হবে না।

এখন মনে করুন আপনি একটি ওয়েবসাইটের স্পাম স্কোর দেখে নিতে চাচ্ছেন। তখন আসলে কি করবেন?

ওয়েবসাইটের স্পাম স্কোর দেখে নেওয়ার জন্য আপনাকে খুব বেশি বেগ পেতে হবে না।

আপনি শুধু websiteseochecker.com/spam-score-checker এই লিংকে ক্লিক করে নিতে হবে।

ও যথারীতি তারপর কাঙ্ক্ষিত ওয়েবসাইটের Url address দিতে হবে।

website spam score

দেখুন আমাদের ব্লগে স্পাম স্কোর কত তা এখানে দেখিয়ে দিয়েছে। এবং তা ছাড়া এখান থেকে আপনি যে কোন ওয়েবসাইটের DA,PA,সহ ইত্যাদি আরও বিষয়ে জেনে নিতে পারবেন।

৬. ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংক সম্পর্কে 

ফ্রিতে ওয়েবসাইট ব্যাকলিংক দেখে নেওয়ার প্রচুর টুলস রয়েছে। তবে তা অনেক ক্ষেত্রেই আপনাকে ভুল ইনফরমেশন দেখিয়ে থাকে।

যার জন্য আপনাকে কিছু সময় ভুলের মাঝে থাকতে হতে পারে।

তবে আপনি জেনে রাখুন একটি ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংক দেখে নেওয়ার জন্য অতান্ত সহজ।

আপনি খুব সহজেই যে কোন ওয়েবসাইটে কত গুলো ব্যাকলিংক রয়েছে তা জেনে নিতে পারবেন।

একটি ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংক দেখে নেওয়ার জন্য ahrefs.com/backlink-checker এই লিংকে কিল্ক করে নিতে হবে।

তারপর আপনি যে ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংক গুলো দেখে নিতে চান, তার Url address বা Domain name দিতে হবে।

website free backlink checker tools

দেখুন আমাদের ব্লগে কতগুলো ব্যাকলিংক রয়েছে ও তা কোথা থেকে তৈরি করা হয়েছে বিস্তারিত সব কিছুই এখানে দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে।

তাহলে বুজতে পারছেন তো যে কোন ওয়েবসাইটের ব্যাকলিংক দেখে নেওয়া কততা সহজ।

৭. ওয়েবসাইটের স্পীড Check করে নিন। 

যদি আপনি বর্তমান সময়ে এসে নতুন ব্লগিং শুরু করছেন বা করবেন। তবে আপনার কম্পিটিটরের ওয়েবসাইট স্পীড অবশ্যই চেক করে দ্যাখা উচিৎ।

কেননা ওয়েবসাইট স্পীড এখন Ranking factor. তাই জন্য আপনার সর্বদা ওয়েবসাইট স্পীড সম্পর্কে বিশেষ ভাবে নজর রেখে যেতে হবে।

ওয়েবসাইট স্পীড চেক করবার জন্য এখন অনেক টুলস রয়েছে, তবে তার মাঝে সব থেকে সেরা এবং অন্যতম ফ্রি ওয়েবসাইট স্পীড দেখার টুলস হচ্ছে PageSpeed Insights.

এটা Google এর তৈরি একটি ফ্রি টুলস, এই টুলস ব্যবহার করে আপনি একদম সঠিক ভাবে নিজের ওয়েবসাইট বা অন্য যে কোন ওয়েবসাইট স্পীড সম্পর্কে ধারনা পেতে পারবেন।

যে কোন ওয়েবসাইটের স্পীড দেখার জন্য PageSpeed Insights এই লিংকে ক্লিক করে নিতে হবে।

এবং অতঃপর কাঙ্খিত ওয়েবসাইটের Url address বা Domain নেম দিতে হবে।

website speed test

এখন দেখুন আমাদের ব্লগের স্পীড সম্পর্কে এখানে বিস্তারিত দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আপনিও একই পদ্ধতিতে ইন্টারনেটে অবস্থিত যে কোন ওয়েবসাইট স্পীড সম্পর্কে জেনে নিতে পারবেন।

এবং মজার বিষয় হচ্ছে, এই টুলস আপনাকে বলে দিবে আপনার ওয়েবসাইটের কোথায় কি সমস্যা রয়েছে।

ফলে আপনি খুব সহজেই তা দেখে নিয়ে নিজের ওয়েবসাইট আরও বেশি করে অপ্টীমাইজ করে নিতে পারবেন।

৮. ওয়েবসাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি কি,না তা দেখে নিন 

আমি উপরে যেমন টা বলছিলাম বর্তমান সময়ে ব্লগিং ফিল্ডে টীকে থাকতে চাইলে আপনার প্রচুর বিষয়ের উপর নজর রেখে চলতে হবে।

নিজের অথবা আপনার কম্পিটিটরের ওয়েবসাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি কিনা তা দেখে নেওয়া অতান্ত জরুরি একটি বিষয়।

কেননা যদি আপনার ওয়েবসাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি না হয়ে থাকে, তবে আপনি কখনই Search engine এ নিজের ওয়েবসাইট rank করিয়ে নিতে পারবেন না।

তাই জন্য আপনার ওয়েবসাইটের প্রতিটা পেজ ও আর্টিকেল মোবাইল ফ্রেন্ডলি আছে নাকি নেই, তা নিয়মিত দেখে নেওয়া টা অনেক দরকারি।

ওয়েবসাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি কি,না তা দেখে নেওয়ার জন্য Mobile friendly test এই লিংকে ক্লিক করে নিতে হবে।

ও তারপর কাঙ্খিত ওয়েবসাইট বা ওয়েবপেজের Url address দিয়ে নিতে হবে।

website mobail frendly test

দেখুন আমাদের ব্লগ সম্পূর্ণ ভাবে মোবাইল ফ্রেন্ডলি, আমাদের ব্লগে কোন রকম সমস্যা নেই।

আর ঠিক এভাবেই আপনি আপনার ওয়েবসাইট বা অন্য যে কোন ওয়েবসাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি কি,না তা দেখে নিতে পারবেন খুব সহজেই।

৯. ওয়েবসাইটের সিকিউর কি,না দেখে নিন 

নিয়মিত আপনি ইন্টারনেট ব্যবহার করে যে সকল ওয়েবসাইট ব্যবহার করে থাকেন, সে সকল ওয়েবসাইট কতটা সিকিউর বা কোন malware রয়েছে কিনা তা দেখে নেওয়া অতান্ত জরুরি একটি বিষয়।

কেননা আপনি নিয়মিত যে সকল ওয়েবসাইট ব্বাওহার করছেন, যদি তাতে কোন সিকিউরিটি জনিত সমস্যা থাকে।

তবে আপনি খুব সহজেই Hacking এর স্বীকার হয়ে যেতে পারেন।

তা ছাড়াও ধরে নিন, আপনি নতুন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেছেন। এবং আপনার কাঙ্খিত ওয়েবসাইটে আপনি ইন্টারনেট থেকে ফ্রিতে Null theme/plugin install করে রেখেছেন।

সে খেত্রেও আপনার ওয়েবসাইট hack হয়ে যেতে পারে।

তাই জন্য আপনার ওয়েবসাইট সিকিউর রয়েছে কিনা তা নিয়মিত দেখে নেওয়া প্রচুর বুদ্ধিমানের কাজ হতে পারে।

এই জন্য আপনার ব্যবহারক্রিত ওয়েবসাইট বা আপনার পার্সোনাল ওয়েবসাইট সিকিউর রয়েছে কি,না দেখার জন্য Virustotal এই লিংকে ক্লিক করে নিন।

ও তারপর আপনি তিনটি অপশন পাবেন,

1 file, 2 URl, 3 SEARCH

তার থেকে আপনি URL অপশন টি নির্বাচন করে নিবেন ও কাঙ্খিত Url address দিয়ে নিবেন।

website virus checker

দেখুন আমাদের ব্লগে কোন রকম সিকিউরিটি রিলেটেড সমস্যা নেই।

যদি কোন malware বা virus ওয়েবসাইটে থাকতো, তবে তা এখানে আপনাকে দেখিয়ে দিত।

তাহলে বুজতে পারছেন তো কিভাবে নিজের ওয়েবসাইট বা অন্য সকল ওয়েবসাইট সিকিউর কি,না তা কিভাবে দেখে নিবেন।

১০. যে কোন ওয়েবসাইটের ভিজিটর কিভাবে Check করবেন 

ইন্টারনেটে এমন অসংখ্য টুলস রয়েছে, যে টুলস গুলো ব্যাবহারের মাধ্যমে আপনি যে কোন ওয়েবসাইটে প্রতি মাসে কত ভিজিটর হয় তা খুব সহজেই দেখে নিতে পারবেন।

তবে তা বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই আপনাকে ভুল ইনফরমেশন প্রদান করে থাকে।

কেননা একটি ওয়েবসাইটে ঠিক কত ভিজিটর হয় তা এক মাত্র Google analytics ছাড়া দ্বিতীয় আর অন্য কোন টুলস সঠিক ভাবে দেখাতে পারে না।

কিন্তু কথা হচ্ছে, google analytics দিয়ে তো শুধু নিজের ওয়েবসাইটের ভিজিটর দেখা যেতে পারে।

তাহলে কিভাবে অন্যর ওয়েবসাইটের কত ভিজিটর হয় তা দেখে নিবেন?

তার জন্য আপনাকে SimilarWeb এখানে এই লিংকে ক্লিক করে নিতে হবে।

ও তারপর উপরে সার্চ বারে কাঙ্ক্ষিত ওয়েবসাইটের Domain name বা Url address দিয়ে নিতে হবে।

website visitor analytics

আমরা এখানে Google এ প্রতি মাসে কত ভিজিটর হয় তা check করেছি।

এভাবে চাইলে আপনি যে কোন ওয়েবসাইটে প্রতি মাসে কত ভিজিটর হয়, ও কাঙ্খিত ওয়েবসাইটের Rank কত নাম্বার ইত্যাদি বিষয় গুলো খুব সহজেই দেখে নিতে পারবেন।

মুলকথা,

সম্পূর্ণ আর্টিকেল জুড়ে আমরা চেষ্টা করেছি কিভাবে একটি ওয়েবসাইটের সকল ইনফরমেশন বের করে দেখতে হয় তা সম্পর্কে আপনাকে জানিয়ে দিতে।

কিছু সময় একটি ওয়েবসাইট সম্পর্কে আমাদের বিস্তারিত করে সকল কিছু জেনে নেওয়ার অনেক বেশি প্রয়োজন হয়ে থাকে, এবং তাই জন্যই আমাদের এই প্রয়াস।

আমরা আশা করছি, এই আর্টিকেল থেকে আপনি নতুন কিছু জানতে পেরেছেন।

এবং এই আর্টিকেল সম্পর্কিত আপনার কোথাও বুজতে সমস্যা থাকলে তা আমাদের জানাতে পারেন এবং আপনার কোন মতামত থাকলে তা নিচে কমেন্ট করে অবশ্যই আমাদের সাথে শেয়ার করুণ।

Hi, i'm Akash Golder, Author & founder of "LarnBD", A blog that provides authentic information regarding technology, blogging, SEO, online earn money, how to guide & much more.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *