সেরা কিছু ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন – ব্লগিং প্যাঁক

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন

এমনিতে ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রী প্লাগিন এর কোন কমতি নেই। তবে ফ্রি প্লাগিন এর মাঝে এতো এতো ভালো কিছু প্লাগিন আছে যেগুলা সত্যি খুব কাজের প্রমাণিত হতে পারে।

এবং আপনি যদি একজন ব্লগার হয়ে থাকেন তবে অবশ্যই অবশ্যই আপনার আজকের আর্টিকেলে শেয়ার ক্রিত প্লাগিন গুলি ব্যবহার করা উচিৎ।

তবে এখানে কিছু কথা থাকছে, যেমনঃ- ফ্রিতে কিন্তু অনেক,অনেক প্লাগিন পাওয়া যায়। তবে অনেক সময় ফ্রি প্লাগিন আপনার ওয়েবসাইটের জন্য হানিকারক হয়ে উঠতে পারে।

হ্যাঁ, এই বিষয়েও এই আর্টিকেলে বিস্তারিত আলচনা করব। এবং আপনাকে বুঝিয়ে বলবার চেষ্টা করব কেন অনেক সময় ফ্রি প্লাগিন গুলি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য হানিকারক হয়ে উঠতে পারে।

আজ আপনার জন্য সত্যি চমক থাকছে। আপনি আপনার ওয়েবসাইটের স্পীড অপ্টীমাইজেশন থেকে শুরু করে, এসইও, সিডিএন, সিকিউরিটি সব কিছুই ফ্রিতে করে নিতে পারবেন।

তাহলে চলুন জেনে নেওয়া যাক ওয়ার্ডপ্রেস এর সেরা কিছু ফ্রি প্লাগিন সম্পর্কে।

প্লাগিন কাকে বলে ও প্লাগিন এর কাজ কি?

প্লাগিন হচ্ছে এমন কিছু সফটওয়্যার বা অ্যাপস। যা ব্যবহার এর মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েবসাইটে ইচ্ছা মত সব ফিচার যুক্ত করতে পারবেন।

যেমনঃ- মনে করুন আপনার কাছে একটি এন্ড্রয়েড ডিভাইজ আছে। এখন আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ডিভাইজ টিকে বেটার লুক দেওয়ার জন্য, কিছু অ্যাপস ব্যবহার এর মাধ্যমে আপনি তা করে নিতে পারছেন।

অর্থাৎ অ্যাপস ব্যবহার করে আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ডিভাইজ কে ইচ্ছা মত কাস্টমাইজ করতে পারছেন। সহজ ভাষায় আপনি আপনার ডিভাইসে অনেক,অনেক ফিচার যুক্ত করে ফেলতে পারছেন কিছু অ্যাপস ব্যবহার করে।

প্লাগিন এর কাজ ও ঠিক তাই। অর্থাৎ আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে প্লাগিন ব্যবহার করবার মাধ্যমে আপনি অনেক,অনেক ফিচার যুক্ত করতে পারছেন।

আসলে ওয়ার্ডপ্রেস খুব সাধারন ভাবেই তৈরি করা, আপনি কিছু প্লাগিন ব্যবহার না করে ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে খুব বেশি কিছু করতে পারবেন না।

  • যেমনঃ- আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইতের এসইও, করবার জন্য প্লাগিন প্রয়োজন।
  • ওয়ার্ডপ্রেস সিকিউর করবার জন্য ও প্লাগিন প্রয়োজন।
  • ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট কাস্টমাইজ করতে প্লাগিন প্রয়োজন।
  • ওয়ার্ডপ্রেস বেটার করে অপ্টীমাইজেশন করতেও প্লাগিন প্রয়োজন।

ভেবে দেখুন, এতো কিছু প্লাগিন ছাড়া করতে আপনার কতখানি বেগ পেতে হবে?

এবং তা ছাড়াও, আপনি কেনই বা প্লাগিন ব্যবহার না করেই আপনার ওয়েবসাইটের জন্য এতো কিছু করতে যাবেন?

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন মুলত এ জন্যই তৈরি করা হয়েছে। যার ফলে আপনি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের জন্য বেশি, বেশি ফিচার যুক্ত করতে পারেন। ও নিজের কাজ কে সহজ করে তুলতে পারেন।

সেরা কিছু ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন লিস্ট

আপনাকে যেমন টা বলেছিলাম, আজ আপনাদের সাথে এমন কিছু ফ্রি প্লাগিন শেয়ার করব যা আপনার অবশ্যই ব্যবহার করা উচিৎ।

এবং এই প্লাগিন গুলো ব্যবহার এর মাধ্যমে আপনি আপনার ওয়েবসাইটের এসইও, পেজস্পীড অপ্টিমাইজেশন, সিকিউরিটি বাড়িয়ে তোলা সহ অনেক কিছুই করে নিতে পারবেন।

তবে এখানে কিছু প্লাগিন থাকছে, যার প্রিমিয়াম ভার্শন আছে, তবে দুঃখিত হবার দরকার নেই।

আপনি ফ্রিতেই সব কিছু করে নিতে পারবেন।

আচ্ছা, চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক ওয়ার্ডপ্রেস এর সেরা কিছু প্লাগিন সম্পর্কে। এবং প্লাগিন গুলির ফিচার গুলি সম্পর্কে।

১. Rank Math

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন
ইমেজ ক্রেডিটঃ rankmath.com

Rank Math আমার দেখা সব থেকে সেরা এসইও প্লাগিন। আপনার ওয়েবসাইটের অন পেজ এসইও অপ্টিমাইজ করবার জন্য Rank Math থেকে ভালো কিছু, আর হতেই পারে না।

Rank Math আপনাকে ফ্রিতে যেসকল ফিচার দিচ্ছে, তা আপনি কখনই অন্য কোন ফ্রি প্লাগিন থেকে আশাই করতে পারবেন না।

মার্কেটে অন্যান্য যে সকল এসইও করবার প্লাগিন আছে। তাদের সবার থেকে Rank Math সব কিছুতেই এগিয়ে। এক কথায় আপনি ফ্রিতে সকল প্রিমিয়াম কিছু পেয়ে যাচ্ছেন।

এবং তা ছাড়া Rank Math অতান্ত lightweight একটি প্লাগিন। এমন অনেক প্লাগিন আছে যা শুধু মাত্র আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটে ইন্সটাল করবার পরেই আপনার ওয়েবসাইট অধিক স্লো হয়ে থাকে।

আপনি যদি খুব বেশি ট্রিকি মানুষ না হয়ে থাকেন, তবেও আপনি খুব সহজেই Rank Math এর সকল ফিচার সম্পর্কে খুব সহজেই অবগত হয়ে যেতে পারবেন।

কারন Rank Math প্লাগিন এর user interface জটিল নয়। আপনি খুব সহজেই সকল কিছু বুজতে পারবেন।

Rank Math প্লাগিন এর ফিচার সমুহঃ-

  • Setup Wizard (Easy to follow)
  • Google Schema Markup aka Rich Snippets Integrated
  • Automatic Keyword Suggestions from Google
  • 1-Click Import From Redirection
  • 5 Focus Keyword
  • Google Search Console Integration
  • Local Seo
  • XML Sitemap
  • Image SEO
  • 404 Monitor
  • Internal Linking Suggestions
  • 1-Click Import From Yoast
  • Google Keyword Suggestion

এছাড়াও আরও অনেক ফিচার আছে Rank Math প্লাগিনে। যা আপনাকে অন পেজ এসইও করতে মারাত্তক সহায়তা করবে।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের এসইও নিয়ে অনেক সচেতন হয়ে থাকেন। তবে Rank Math প্লাগিন আপনার অবশ্যই একবার ট্রাই করে দেখা উচিৎ।

এবং আপনিও যদি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য আরও বেশি ফিচার চান, তবে আপনি Rank Math প্লাগিন এর প্রিমিয়াম ভার্শন দেখতে পারেন।

তবে আমি আপনাকে পরামর্শ দিব,আপনি Rank Math প্লাগিন এর ফ্রি ভার্সন ব্যবহার করুন। যদি আপনি একটি এজেন্সি বা বড় বিজনেস রান করছেন,তবে আপনি Rank Math প্লাগিন এর প্রিমিয়াম ভার্সন ব্যবহার করতে পারেন।

২. Jetpack

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন
ইমেজ ক্রেডিটঃ jetpack.com

যদি আপনি একের মাঝে সব কিছু খুঁজে থাকেন তবে Jetpack প্লাগিন টি আপনার অত্তাধিক কাজের বলে প্রমাণিত হতে পারে।

কেবল তাই নয়, আপনি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য ফ্রি ইমেজ সিডিএন পেয়ে যাবেন।

এবং যদি আপনি এমন কোন ওয়ার্ডপ্রেস থিম ব্যবহার করছেন। যে থিমের সাথে built in ভাবে কোন related post option দেওয়া নেই, এ খেত্রেও কিন্তু Jetpack প্লাগিন আপনাকে সহায়তা করতে পারে।

সোশ্যাল মিডিয়া’তে আপনার নতুন লেখা আর্টিকেল automatically পোস্ট করতেও আপনাকে সহায়তা করবে।

এবং আপনি চাইলে আপনার ওয়েবসাইটে, (Like, and Share) বাঁটন ও অ্যাড করতে পারবেন Jetpack প্লাগিন টি ব্যবহার করে।

তা ছাড়াও Jetpack প্লাগিন আপনার ব্লগে Brute force attack রুখতে অনেক সহায়তা করবে।

Jetpack প্লাগিন এর ফিচার সমুহঃ-

  • Free Image CDN
  • Enhanced website functionality
  • Traffic growth and statistics
  • Fortified security
  • Centralized website management
  • Search engine optimization

যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটে অধিক ফিচার যুক্ত করতে চান, তবে Jetpack প্লাগিন আপনার অবশ্যই এখনই ট্রাই করে দেখে নেওয়া উচিৎ।

৩. WP Super Cache

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন
ইমেজ ক্রেডিটঃ automattic.com

WP Super Cache হচ্ছে এমন একটি caching plugin যা প্রায় বেশির ভাগ হোস্টিং কম্পানি থেকে Recommend করে থাকে।

আসলে ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট অধিক থেকে অধিক করে অপ্টিমাইজ করে তুলতে আপনার অবশ্যই একটি caching plugin ব্যবহার করা উচিৎ।

মনে করুন, আপনি (without caching plugin) ওয়েবসাইট রান করছেন। এখন আপনার ওয়েবসাইটে কেবল কিছু সংখ্যক মানুষ ভিজিট করতে পারছে। খুব বেশি traffic আসলে আপনার ওয়েবসাইট Down হয়ে যাচ্ছে।

তাহলে আপনার ওয়েবসাইটে যদি একটি caching plugin ব্যবহার করতেন তবে আপনার ওয়েবসাইট Down হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা অনেক খানি কমে যেত।

caching plugin আপনার ওয়েবসাইটের সম্পূর্ণ একটি কপি (Browser) এ সেভ করে রাখে। ফলে যখনই আপনার ওয়েবসাইটে Visitor আসে, তখন তার Browser থেকে আপনার ওয়েবসাইট লোড হয়।

আর তার ফলে আপনার (hosting server) এ কম লোড পড়ে। এবং এই জন্যই আপনি যদি একটি caching plugin ব্যবহার করেন তবে আপনার ওয়েবসাইটে অধিক পরিমান website traffic handle করতে পারে।

ফ্রি caching plugin এর মধ্যে সব থেকে সেরা হচ্ছে WP Super Cache Plugin, খুব সহজেই আপনি আপনার ওয়েবসাইটে এই প্লাগিন টি ব্যবহার করতে পারবেন।

WP Super Cache প্লাগিন এর ফিচার সমুহঃ-

  • Preloading
  • Garbage collection
  • CDN integration
  • Easy to setup
  • REST API
  • Custom cacheing

WP Super Cache প্লাগিন এর কিছু বিষয় আমার কাছে অত্তাধিক ভালো লাগে, তার মাঝে সব থেকে ভালো লাগে, এই প্লাগিন টি Setup করা খুব খুব সহজ।

৪. LuckyWP Table of Contents

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন
ইমেজ ক্রেডিটঃ theluckywp.com

অন পেজ এসইও ঠিক ভাবে করবার জন্য, আপনার অবশ্যই উচিৎ একটি Table of Contents plugin এর ব্যবহার করবার।

তবে আপনি যদি অনেক বেশি ফিচার চান, ও অনেক বেশি করে কাস্টমাইজেশন করতে চান তবে (LuckyWP Table of Contents) আপনার জন্য একেবারেই আদর্শ প্রমাণিত হতে পারে।

আপনি অধিক, থেকে অধিকতর ফিচার পেয়ে যাবেন LuckyWP Table of Contents plugin এ, এবং আপনার যেমন ইচ্ছা ঠিক তেমন ভাবেই কাস্টমাইজ করতে পারবেন (Table of Contents Sections)।

LuckyWP Table of Contents প্লাগিন এর ফিচার সমুহঃ-

  • SEO-friendly
  • Insert by shortcode
  • Button on toolbar of the classic editor
  • Pretty hash in URL
  • Smooth scroll
  • Toggle Show/Hide
  • Color schemes
  • Hierarchical or linear view
  • Skip headings by level or text
  • And much more

এবং এই প্লুগিন টি প্রচুর lightweight ফলে আপনার ওয়েবসাইটে একটুও বাজে প্রভাব পড়বে না।

৫. Smush

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন
ইমেজ ক্রেডিটঃ premium.wpmudev.org

ওয়েবসাইটের অন পেজ এসইও এর ক্ষেত্রে ইমেজ অপ্টিমাইজেশন এর ভুমিকা অধিক গুরুত্বপূর্ণ।

তাই আপনি যদি ইমেজ অপ্টিমাইজেশন করবার জন্য কোন প্লাগিন ব্যবহার না করে থাকেন তবে Smush Plugin টি ব্যবহার শুরু করে দিতে পারেন।

আপনি Smush Plugin ব্যবহার শুরু করে দেওয়ার পরে অনেক বেশি পার্থক্য অনুভব করবেন আপনার ওয়েবসাইটের লোডিং স্পীড এ।

এছারাও আপনি Smush Plugin ব্যবহার এর মাধ্যমে আপনার (imege, youtube video) তে lazy loading চালু করে নিতে পারবেন।

যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইটে ইমেজ, ভিডিও ব্যবহার করে থাকেন। তবে lazy loading আপনার অবশ্যই অবশ্যই ব্যবহার করা উচিৎ।

এবং আপনার ওয়েবসাইটে আপনি অধিক ইমেজ ব্যবহার করছেন, তবে smush plugin আপনাকে মারাত্তক ভাবে সহায়তা করতে আপনার সকল ইমেজ এক সাথে অপ্টিমাইজেশন করতে।

Smush Plugin এর ফিচার সমুহঃ-

  • Lossless Compression
  • Lazy Load
  • Bulk Smush
  • Image Resizing
  • Incorrect Size Image Detection
  • Automated Optimization
  • Process All Your Files
  • Multisite Compatible
  • And much more

Smush plugin এর প্রিমিয়াম ভার্সনে আপনি আরও অধিক ফিচার পেয়ে যাবেন। আপনি যদি শুধু একজন ব্লগার হয়ে থাকেন তবে Smush plugin এর ফ্রি ভার্সন যথেষ্ট আপনার জন্য।

৬. Statically

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন
ইমেজ ক্রেডিটঃ statically.io

আমি আর্টিকেল এর শুরুতেই আপনাকে ফ্রি সিডিএন (Free CDN) এর কথা বলেছিলাম। Statically হ্যাঁ এটাই সম্পূর্ণ ফ্রি সিডিএন প্লাগিন।

Statically plugin এর কোন প্রিমিয়াম ভার্সন বা সার্ভিস নেই। তারা আপনাকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে (Free CDN server provide) করছে।

এবং আমি যেনে খুশি হয়ে থাকবেন Statically মাল্টি সিডিএন (Multi CDN) ব্যবহার করে থাকে। যেমনঃ Google Cloud, CloudFront, Cloudflare, Fastly, এবং BunnyCDN এটাই Statically plugin এর সব থেকে ভালো বিষয়।

Statically প্লাগিন এর ফিচার সমুহঃ-

  • Image Optimization
  • CDN for CSS and JavaScript files
  • CDN for WordPress Core Assets
  • CDN for WordPress Emoji
  • Automagically create beautiful Open Graph images
  • Easily generate a beautiful favicon for your site
  • Replace existing CDNJS URL with Statically
  • And much more

যদি আপনি ফ্রিতে অনেক ভালো মানের সিডিএন ব্যবহার করতে চান। তবে আপনি Statically plugin এর মাধ্যমে তা করতে পারেন।

৭. Wordfence

ওয়ার্ডপ্রেস ফ্রি প্লাগিন
ইমেজ ক্রেডিটঃ wordfence.com

বর্তমান সময়ে একটি ওয়েবসাইট হ্যাক হয়ে যাওয়া খুব সাধারন একটি বিষয়। এমন অনেক সময় হয়ে থাকে কিছু না করেও আপনার ওয়েবসাইট হ্যাক হয়ে যেতে পারে।

এবং আপনি যদি (nulled themes, plugin) ব্যবহার করে থাকেন আপনার ওয়েবসাইটে, তাহলেও কিন্তু আপনার ওয়েবসাইট হ্যাক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

আবার অনেক সময় কিছু ভুল করবার জন্য ও ওয়েবসাইট হ্যাক হতে পারে। এবং এই বিষয় গুলো নতুন দের জন্য অনেক খানি ট্রিকি হয়ে উঠতে পারে।

কারন কিভাবে একটি ওয়েবসাইট সিকিউর (secure) করতে হয়, এটা তারা ঠিক ভাবে বুজতে পারে না।

তো আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের জন্য all in one security পেতে চান, তবে wordfence security plugin এর সাথে অন্য কিছুরই তুলনা চলবেনা।

আপনার ওয়েবসাইটের সকল প্রকার (hacking attack) রুখে দিবে wordfence security plugin সাথে আপনার ওয়েবসাইতের (Firewall) এর ও সুরক্ষা নিশ্চিন্ত করবে।

এবং আপনার ওয়েবসাইটে যদি কোন ভাবে (virus,malware) এসে থাকে। আপনাকে তা জানিয়ে দেওয়া হবে। আপনি চাইলেও এক কিল্কে এসব virus,malware আপনার ওয়েবসাইট থেকে Delete করে ফেলতে পারবেন।

এ ছাড়াও আপনার ওয়েবসাইটে (two step authentic) চালু করে নিতে পারবেন। ফলে আপনার ওয়েবসাইটের security কয়েক গুন বৃদ্ধি পেয়ে যাবে।

wordfence plugin এর ফিচার সমুহঃ-

  • Web application firewall protection
  • Malware scanner
  • Themes plugin file scanner
  • Blocks malicious traffic
  • Repair files
  • Two-factor authentication
  • Disable or add 2FA to XML-RPC
  • And much more

আপনার ওয়েবসাইটের সিকিউরিটি নিয়ে যদি আপনি অত্তাধিক সচেতন হয়ে থাকেন, তবে আপনার অবশ্যই wordfence security ব্যবহার করা উচিৎ হবে।

কেন অধিক ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ব্যবহার করা উচিৎ নয়?

অধিক ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ব্যবহারে আপনার ওয়েবসাইট স্লো হয়ে যেতে পারে, এবং আপনার ওয়েবসাইতের security issue বৃধি পেতে পারে।

এবং অনেক সময় অনেক বেশি প্লাগিন ব্যবহার করবার ফলে, আপনার ওয়েবসাইট ডাউন হয়ে যেতে পারে।

তা ছাড়া আপনার সার্ভারে অনেক বেশি লোড পড়তে পারে, যার জন্য আপনার ওয়েবসাইট ক্রাশ পর্যন্ত হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

এবং অধিক প্লাগিন আপনার ওয়েবসাইটের এসইও এর জন্য অনেক হানিকারক প্রমাণিত হতে পারে।

আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের সব কিছু খুব সুন্দর করে গুছিয়ে রাখতে চান, তবে অধিক প্লাগিন ব্যবহার না করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

আরও কিছু সমস্যা আছে!

অনেক ফ্রি প্লাগিন অনেক বাজে ভাবে কোড করা থাকতে পারে, আপনি যদি এমন কিছু প্লাগিন আপনার ওয়েবসাইটে ব্যবহার করেন তবে আপনার ওয়েবসাইটের Overall Performance বাজে হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

চেষ্টা করুন, সর্বদা আপডেটেড প্লাগিন ব্যবহার করবার। এমন কোন প্লাগিন ব্যবহার করবেন না যা বিগত ২ মাসের বেশি সময় থেকে আপডেট করা হয়নি।

মুল কথাঃ-

আজ আপনাদের সাথে এমন কিছু প্লাগিন শেয়ার করেছি, যা ব্যবহারে আপনার ওয়েবসাইটের সকল কিছু খুব সুন্দর করে গুছিয়ে তুলতে পারবেন।

এই প্লাগিন গুলি ১০০% সুরক্ষিত, এই প্লাগিন গুলি ব্যবহার এর ফলে আপনাকে কোন রকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না, নিশ্চিন্তে এই প্লাগিন গুলি ব্যবহার করে যেতে পারেন।

এবং আমাদের মত প্রায় সকল ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটেই এই প্লাগিন গুলি ব্যবহার করাটা খুবই জরুরি। যদি আপনি আপনার ওয়েবসাইট নিয়ে অনেক টা সচেতন হয়ে থাকেন তবে।

বরাবরের মতই বাই,বাই! এই আর্টিকেল সম্পর্কে আপনার কিছু জানবার বা আপনার কোন মতামত থাকলে তা কমেন্ট সেকশনে আমাকে জানাতে ভুলবেন না। টেক লাভ 💕

আপনিও কি আমার মত টেক পোকা? আপনারও কি নতুন নতুন টেকনোলজি বিষয়ে জানতে ভালো লাগে? তাহলে বন্ধু আপনি একদম সঠিক জায়গাতে এসেছেন, কেননা আমি এখানে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন টেক বিষয় গুলি নিয়ে আলোচনা করি, এবং টেকনোলজির জটিল টার্ম গুলিকে আপনাদের সামনে জলের মত সহজ করে উপস্থাপন করার চেষ্টা করি

Comments 2

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

>