১৪ টি ব্রিলিয়ান্ট ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া (Best Brilliant Youtube Channel idea)

১৪ টি ব্রিলিয়ান্ট ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া

আপনি কি ইউটিউব চ্যানেল তৈরির কথা ভাবছেন? কিন্তু সঠিক আইডিয়ার অভাবে বুজতে পারছেন না কি ভাবে শুরু করবেন? ওয়েল, তাহলে আপনি একদম সঠিক যায়গাতে এসে পড়েছেন, এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে ১৪ টি ব্রিলিয়ান্ট ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া শেয়ার করব। কে বলতে পারে, হয়তবা আপনি হয়ে উঠতে পারেন নেক্সট ইয়উটুবার!

বর্তমান সময়ের কথা ধরলে এমন কাউকে খুঁজে পাওয়া সত্যি খুব কঠিন; যার নিজেকে একজন ইয়উটুবার হিসাবে দেখতে ইচ্ছা হয় না। এমন মানুষ সত্যি খুঁজে পাওয়া বিরল। বাট ইচ্ছা থাকা সর্তেও অনেক সময় নানান কারন বসত পিছিয়ে পড়তে হয়।

যেমন; হুবহু কাউকে কপি করতে চাওয়া! তার মত করে কন্টেন্ট তৈরির চিন্তা করা। ইউটিউব হচ্ছে এমন একটি প্লাটফর্ম এখানে আপনি যত বেশি ইউনিক হতে পারবেন, ঠিক তততুকুই সাফল্য দেখতে পাবেন।

বাট আমরা সকলেই যে ভুল গুলি করি তা হচ্ছে, অন্য কারো মত করে নিজেকে তৈরি করতে চাওয়া! এই একটা বিষয় আসলে সব সমস্যার সৃষ্টি করে। এটা শুধু ইউটিউব এর ক্ষেত্রে নয়, প্রায় সকল ক্ষেত্রেই দেখা যায় – যখন কেউ অন্য কারো মত করে নিজের সব কিছু গুছিয়ে তুলতে চায়, তখনই তাকে ফেইল করতে হয়।

অবশ্য এমন হবার পিছে একটা কারন আছে, এবং তা হচ্ছে নিজের অক্ষমতা – শুনতে বাজে লাগলেও এটাই সত্য। কাউকে কপি করা মানেই নিজের ভেতরের সব কিছুকে মাটি চাপা দিয়ে অন্য কারো মত হবার বৃথা প্রচেস্টা মাত্র।

আর এ জন্যই আমাদের ইচ্ছা থাকা সর্তেও আমাদের অনেক কিছুতে বার বার পিছিয়ে পড়তে হয়। তাই মুল আর্টিকেলে যাবার পূর্বে আপনাকে বলতে চাই – আপনি যদি ভেতর থেকেই সিধান্ত নিয়ে থাকেন যে আপনি একজন ইয়উটুবার হয়ে উঠবেন, তাহলে আশা করছি আজকের আর্টিকেল আপনার সত্যি অনেক কাজে দিবে।

কেন আপনি একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন?

বর্তমান টাইমে এসে আমার মতে আমাদের সকলের’ই একটা ইউটিউব চ্যানেল থাকা টা অনেক টাই জরুরি। হতে পারে সেটা কোন পার্সোনাল কাজের জন্য, কিংবা নিজের লোকাল বিজনেস প্রোমট করবার জন্য।

মোট কথা, এখন আপনার একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকাটা অনেক টাই জরুরি একটা বিষয়। প্রায় সকল ক্ষেত্রেই আপনাকে সাহায্য করবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল। এ ছারাও নিজের অনেক পার্সোনাল কাজ ও একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে করে নেওয়া পসেবল। তবে এই আর্টিকেলে এই বিষয়ে আলচনা করব না। এই টপিক টি অন্য কোন আর্টিকেল এর জন্য তুলে রাখছি।

এখন আপনার একটি ইউটিউব চ্যানেল থাকার মানে হচ্ছে, প্রথমত আপনি যদি ইউনিক কন্টেন্ট তৈরি করতে পারেন, তবে আপনি প্রচুর পরিমানে অর্থ কামিয়ে নিতে পারবেন। দ্বিতীয় আপনি রাতারাতি অনেক পপুলার হয়ে উঠতে পারবেন।

তো সব কিছু মিলিয়ে হচ্ছে, আপনি টাকা ইনকাম করতে চান, ও অনলাইনে নিজের ক্যারিয়ার ঠিক ভাবে বিল্ড করতে চান, তাহলে আপনি আজই একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে ফেলতে পারেন।

১৪ টি ব্রিলিয়ান্ট ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া লিস্ট

উপরে যেমন টা বলছিলাম; ইচ্ছা থাকা সর্তেও আপনাদের অনেকের সাথে একটা সেইম গল্প ঘটে যায় এবং তা হচ্ছে বিফল হয়ে যাওয়া। আপনার কাজের প্রতি ইচ্ছা আছে, আপনি মন থেকেই চান কাজ টি করতে বাট ঐযে উপরে বললাম অন্য কে কপি করতে গিয়েই সব কিছু মাটি হয়ে যায়।

নিচে আপনাদের সাথে যে ১৪ টি বিলিয়ান্ট ইউটিউব চ্যানেল তৈরির আইডিয়া শেয়ার করব, এই আইডিয়া গুলি ব্যাবহার করে আপনি যদি নিজের মত করে ইউনিক কনসেপ্ট নিয়ে কন্টেন্ট তৈরি করতে পারেন। তবে হ্যাঁ, আপনিও হয়ে উঠতে পারবেন নেক্সট ইউটুবার। তাহলে চলুন যেনে আসি ১৪ টি ব্রিলিয়ান্ট ইউটিউব চ্যানেল তৈরির আইডিয়া সম্পর্কে।

১.Unboxing চ্যানেল

বর্তমান সময়ে Unboxing চ্যানেল তৈরি করে কিন্তু অনেক বেটার কিছু করা পসেবল। আচ্ছা শুনুন ধরে নিন আপনি একটি Samsung a50 মোবাইল ফোন টি কিনতে চাচ্ছেন। বাট আপনি ঠিক ভাবে বুজতে পারছেন না যে এই মোবাইল টি আপনার জন্য উপযুক্ত কিনা!

এখন আপনি কি করলেন ইউটিউবে গিয়ে সার্চ করলেন “Samsung a50 Unboxing/review” এখন আপনি অনেক গুলা ভিডিও পেয়ে যাবেন এই মোবাইল রিলেটেড। তারা আপনাকে এই মোবাইলের Unboxing থেকে শুরু করে মোবাইল রিভিউ সব কিছু একদম নিখুদ ভাবে বুঝিয়ে বললে।

এবং তখন আপনি বুজতে পারবেন যে এই মোবাইল টি আপনার জন্য গুড চয়েজ হবে কি না। ঠিক এভাবেই আপনিও একটি চ্যানেল তৈরি করে সেখানে নিত্ত নতুন Unboxing ভিডিও দিতে পারেন।

এখন কিন্তু এই Unboxing চ্যানেল গুলির অনেক হাইপ, মানে সবাই এক কথায় তুঙ্গে। আপনি একটু ইউনিক ভাবে নিজের কাজ করতে পারলে আপনি অবশ্যই Unboxing চ্যানেল থেকে ভালো কিছু আশা করতে পারেন।

কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • এফিলিয়েট মার্কেটিং
  • স্পন্সরশিপ
  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Utsav Techie
  • TechSci Guy

২.Tech & Gadget Reviews চ্যানেল

আপনি যদি একজন টেকনোলজি প্রেমি মানুষ হয়ে থাকেন, তাহলে তো কোন কথাই নেই চোখ বন্ধ করে একটি Tech & Gadget Review এর উপরে একটি চ্যানেল তৈরি করে ফেলতে পারেন।

এবং বিশ্বাস করুন Tech & Gadget Reviews চ্যানেল এর কিন্তু এখন অনেক মান ভালো, তাই জন্য সফলতার মান ও কিন্তু অনেক ভালো থাকছে এখানে। তবে নিজের মত করে গুছিয়ে Tech & Gadget Reviews এর উপরে ভিডিও তৈরি করতে হবে।

আপনি যদি Tech & Gadget Reviews নিয়ে একটি চ্যানেল তৈরি করেন তাহলে আপনি অনেক দ্রুত সফল হতে পারবেন। কেননা নতুন নতুন Tech নিউজ ও নতুন নতুন Gadget সম্পর্কে আমাদের দিন দিন প্রচুর আগ্রহ বেড়েই চলেছে।

কিভাবে চ্যানেল মনিটাইজ করবেন?

  • এফিলিয়েট মার্কেটিং
  • স্পন্সরশিপ
  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • TechWiser
  • Tech Burner

৩.Helpful Software and Apps চ্যানেল

অনেক সময় অনেক কাজের ও গুরুত্বপূর্ণ সফটওয়্যার খুঁজে পাওয়া যায় না। এবং গেলেও তার কাজ ঠিক কি, বা কিভাবে করতে হয়, এটা সম্পর্কে অনেকেই জানা থাকে না।

তো আপনি যা করতে পারেন, তা হচ্ছে আপনি ইউটিউবে চ্যানেল তৈরি করে সেখানে “Best Helpful Software and Apps” এর উপরে ভিডিও তৈরি করতে পারেন। এবং আপনার ভিডিও এর মাধ্যমে সেই Software ও Apps এর সঠিক ব্যাবহার সবাইকে শিখাতে পারেন।

অর্থাৎ আপনি এমন ভাবে করতে পারেন, একটি Software বা Apps এর কি,কি কাজ এবং কিভাবে কাজ করে এই Software গুলি এই সকল বিষয়ের উপর বিস্তারিত ভিডিও তৈরি করতে পারেন।

কিভাবে চ্যানেল মনিটাইজ করবেন

  • এফিলিয়েট মার্কেটিং
  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Gadget Gig

৪.Digital Marketing & Blogging চ্যানেল

হুম, আপনি আপনার চ্যানেলে কিভাবে “Digital Marketing” শুরু করতে হয়, তারপর কিভাবে আপনি Digital Marketing শুরু করবেন ও কিভাবে তার থেকে টাকা ইনকাম করবেন এই সকল বিষয়ের উপর ভিডিও তৈরি করতে পারেন।

এবং এটা অনেক পপুলার একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরির আইডিয়া। তা ছাড়া আপনি পাশাপাশি “Blogging” রিলেটেড ভিডিও ও তৈরি করতে পারেন।

উদাহরণঃ-

  • ব্লগিং কি
  • কিভাবে ব্লগিং শুরু করবেন
  • ব্লগিং থেকে কিভাবে ইনকাম করবেন
  • ব্লগিং থেকে কত টাকা ইনকাম করা যায়

তো, এই আইডিয়া টি অনুসরন করে আপনি যদি একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করেন, তাহলে তার থেকে আপনি অনেক ভালো কিছু করে নিতে পারবেন। এবং এই Digital Marketing ও Blogging করে কিন্তু অনেকে প্রতি মাসে অনেক অনেক টাকা ইনকাম করে যাচ্ছে। সো আপনিও চাইলে শুরু করে দিতে পারেন।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন

  • এফিলিয়েট মার্কেটিং
  • ইউটিউব এডসেন্স
  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Amit Mishra (Tryootech)
  • Digital Deepak
  • Harsh Agrawal (Shotmeloud)

৫.Ask Me Anything Videos চ্যানেল

ধরে নেওয়া যাক, আপনি ইন্টারনেট রিলেটেড প্রায় সকল বিষয়ের উপর কম বেশি এক্সপার্ট, বা আপনার সকল বিষয়ের উপর কম বেশি জ্ঞান আছে। এখন আপনি আপনার সেই জ্ঞান কে কাজে লাগিয়ে কিন্তু একটা ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে ফেলতে পারেন।

এবং এই আইডিয়া টা কিন্তু বর্তমান টাইমে অনেক বেশি পপুলার। তা ছাড়া মজার বিষয় হচ্ছে এই আইডিয়া অনুসরণ করে আপনি যদি চ্যানেল তৈরি করেন – তাহলে আপনাকে প্রতিনিয়ত কন্টেন্ট তৈরির জন্য মাথার চুল ছিড়তে হবে না।

আপনাকে জাস্ট প্রস্ন করা হচ্ছে, আপনি সিমপ্লি তার সঠিক ও সুন্দর উত্তর প্রদান করবেন, এটাই আপনার কাজ হবে। আর কিছুই নয়। তো আপনি যদি নিজের উপর আত্মবিশ্বাসী হয়ে থাকেন যে আপনি কম বেশি প্রায় সব বিষয়ের উপর জ্ঞান রাখেন, তবে এর থেকে গুড আইডিয়া আর কিছুই হতে পারে না।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • ইউটিউব এডসেন্স
  • স্পন্সরশিপ

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Technical Sagar

৬.Gaming চ্যানেল

হ্যাঁ, Gaming চ্যানেল তৈরি করে কিন্তু এখন রাতারাতি অনেক কিছুই করে নেওয়া পসেবল। আমার একটা ডেডিকেটেড আর্টিকেল পাবলিশ করা আছে, কিভাবে আপনি Gaming চ্যানেল তৈরি করে টাকা ইনকাম করবেন তার উপরে, চাইলে পরে আসতে পারেন।

এবং Gaming চ্যানেল থেকে কিন্তু প্রচুর পরিমানে টাকা ইনকাম করা সম্ভব, যা হয়ত আপনি চিন্তাও করতে পারবেন না। বর্তমান সময়ে সব থেকে লাভজনক ও পপুলার ইউটিউব চ্যানেল তৈরির আইডিয়া হচ্ছে Gaming চ্যানেল। সো আপনি যদি একজন Games প্রেমি মানুষ হয়ে থাকেন। তাহলে অবশ্যই ইউটিউবে একটি চ্যানেল তৈরি করে ফেলতে পারেন।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • ডোনেশন
  • গুগল এডসেন্স
  • স্পন্সরশিপ

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • PewDiePie
  • CarryisLive 
  • BattleKing

৭.Lifehacks চ্যানেল

আপনার মাথায় যদি সর্বদা উদ্ভট টাইপ এর চিন্তা ভাবনা ঘুরা ফেরা করে তাহলে আমার মনে হয় আপনার জন্য বেষ্ট হতে পারে Lifehacks চ্যানেল। আপনি ইউটিউবে একটি চ্যানেল তৈরি করে সেখানে কিভাবে দৈনন্দিক জিবনের কাজ গুলিকে সহজ থেকে আরও সহজ করে করা যায় – তার উপর ভিডিও তৈরি করতে পারেন।

এবং সব থেকে মজার বিষয় হচ্ছে, এই Lifehacks চ্যানেল এর পপুলারিটি কিন্তু দিন দিন ক্রমশ বেড়েই চলেছে। তো আপনি আবার এটা ভেবে বসবেন না যে, Lifehacks চ্যানেল তৈরি করে কি দিন শেষে কিছু করা যাবে।

এক কথায়, আপনি যদি একজন ইউনিক চিন্তা সম্পূর্ণ মানুষ হয়ে থাকেন তবে Lifehacks চ্যানেল আপনার জন্য বেষ্ট অপশন। আপনি আপনার ইচ্ছা মত যা খুশি করে যান। এবং তার থেকে টাকা এবং পপুলারিটি দুটোই কামিয়ে নিন।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • গুগল এডসেন্স
  • স্পন্সরশিপ
  • এফিলিয়েট মার্কেটিং

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Bright Side

৮. Travel Vlogging চ্যানেল

আপনার কি নতুন নতুন যায়গাতে ঘোরাঘুরি করতে অনেক বেশি ভালো লাগে? হুম, যদি আপনার উত্তর হ্যাঁ হয় তাহলে মশায় বসে আছেন কেন? আপনার এই শখের ঘোরাঘুরি কে কাজে লাগিয়ে ইউটিউবে একটি চ্যানেল তৈরি করে ফেলুন।

আপনার মত এমন আরো অনেক মানুষ আছে যাদের ঘুরতে অনেক বেশি ভালো লাগে, হতে পারে আপনার Travel Vlogging দেখে অনেকের সেখানে ঘুরতে যাওয়ার ইচ্ছাটা আরও বেশি প্রবল হতে পারে।

Travel Vlogging এক কথায় এক প্রকার শখ, আপনার নিজের ঘোরাফেরাও হল পাশাপাশি ইউটিউব থেকে মোটা অংকের একটা অর্থ ও উৎপাদন হল।

তাই আপনার যদি ঘুরতে, এবং আপনার ঘুরতে যাওয়া মুহূর্ত কে মানুষের সাথে শেয়ার করতে ভালো লাগে, তাহলে Travel Vlogging ইউটিউব চ্যানেল আপনার জন্য বেষ্ট প্রমানিত হতে পারে।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • এফিলিয়েট মার্কেটিং
  • সেল ই-বুক অ্যান্ড ট্র্যাভেল গাইডস
  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Cartia Mallan

৯.Comic and Superhero চ্যানেল

আচ্ছা, আপনার প্রিয় Superhero এর নাম কি? আমার কিন্তু Doctor Strange আমি অবসর সময়ে প্রচুর মুভি ও ওয়েব সিরিজ দেখি। এবং তার মাঝে টাইম করে Comic ও Superhero দের সম্পর্কে নানান ভিডিও দেখে থাকি, যেমন “Top 10 Magical Superheroes, Thor vs Void – The End of Sentry, Marvel’s Top 10 Most Powerful Superheroes ইত্যাদি, ইত্যাদি।

তো আপনিও নিশ্চয়ই কোন না কোন Superhero এর ফ্যান অবশ্যই আছেন। তো আপনি চাইলেও কিন্তু আপনার প্রিয় Superhero দের নিয়ে ভিডিও তৈরি করতে পারেন। এবং আপনার প্রিয় Superhero সম্পর্কে সব কিছু বিস্তারিত করে আলচনা করতে পারেন।

যেমন আপনার কেন, সেই Superhero কে ভালো লাগে, আপনার পছন্দের Superhero এর বিশেষ কি ক্ষমতা আছে, যার জন্য আপনার তাকে এতো বেশি পছন্দের। অর্থাৎ এই টাইপ এর চিন্তা ভাবনা দিয়েই এমন একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে ফেলা সম্ভব।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • SuperSuper
  • Superhero Comics

১০.Cooking Videos চ্যানেল

আপনি যদি Cooking এ অনেক বেশি এক্সপার্ট হয়ে থাকেন তাহলে আপনি ইউটিউব একটি Cooking চ্যানেল তৈরি করে প্রচুর টাকা ইনকাম করে নিতে পারবেন।

বাংলাতে কিন্তু Cooking Videos এর মান বর্তমান সময়ে প্রচুর বেশি, আপনি কিছুটা বেটার করে নিজের Cooking Videos ধারন করে আপনার চ্যানেলে আপলোড করতে পারেন। ও আপনার Cooking কোয়ালিটি যদি ভালো ও ইউনিক হয়, তবে আপনি রাতারাতি অনেক পপুলার হয়ে উঠতে পারবেন।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • এফিলিয়েট মার্কেটিং
  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Village Cooking Channel
  • Kdeb Cooking

11.Celeb Gossip চ্যানেল

হ্যাঁ, Celeb Gossip চ্যানেল গুলি কিন্তু খুব অল্প সময়ের মাঝেই অনেক বেশি পপুলারিটি পেয়ে থাক। তার কারন সবাই তার প্রিয় তারকা, কোথায় কি করছে, তার আপ কামিং কি মুভি আসছে, বা এখন সে কি মুভির কাজে বাস্ত আছে এসব নিউজ জানতে খুবই আগ্রহি থাকে।

এবং আপনিও যদি সেই দলের মানুষের মাঝে নিজেকে মনে করেন, তবে আপনি কিন্তু নিজে জানার পাশাপাশি তা অন্য কেও জানিয়ে দিতে পারেন, এবং আপনার এই জানানোর মাধ্যম টা হবে আপনার ইউটিউব চ্যানেল।

আর এভাবে আপনি আপনার চ্যানেল তৈরি করে, সেখান থেকে পপুলারিটি পাশাপাশি টাকা দুই এ কামিয়ে নিতে পারবেন।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Celebrity News
  • Crazy 4 Bollywood

১২. Inspirational Videos চ্যানেল

আমাদের আসে পাসে এমন অনেকেই আছে, যারা নিজেদের লাইফে পরিপাটি নয়। সব কিছুই অগোছালো। আপনি যদি অনেক সুন্দর করে গুছিয়ে বুঝিয়ে কথা বলতে পারেন তবে আপনি Inspirational Videos চ্যানেল তৈরি করে ফেলতে পারেন।

ও অগোছালো মানুষ দের সঠিক ভাবে গাইড করে গুছিয়ে চলতে হেল্প করতে পারেন। এতে করে হবে কি, আপনি নিজেও প্রতিনিয়ত কিছু না কিছু শিখতে থাকবেন, তার সাথে উপর কেও ভালো কিছু শিখতে সাহায্য করবেন।

এমনিতে Inspirational Videos বলতে, মনে করুন আপনি আপনার লাইফে কিছু ভুল করেছেন, এবং সেই ভুল গুলি দ্বারা আপনার কি কি ক্ষতি হয়েছে। এবং আপনি এই প্রবলেম থেকে বের হয়েছেন, এসবের উপরে আরকি ভিডিও তৈরি করতে পারেন।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • জীবন-সমস্যার সমাধান

১৩.City Tours চ্যানেল

আপনার শহর ভিন্ন, আমার শহর ভিন্ন – আমি হয়ত আপনার শহরের অনেক কিছুই চিনি না। আপনার শহরে হয়তবা দার্শনিক অনেক জায়গা আছে; জেগুলি সম্পর্কে আমি জানি না।

তো কেমন হয়, আপনি একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করবেন; ও তারপর শেখানে আপনার শহর সম্পর্কে বিস্তারিত ব্যাখ্যা করবেন এবং ঘুরিয়ে দেখাবেন। হুম, খুবই ভালো হয়।

এতে করে হবে কি, আপনার শহরে কোথাও কি দার্শনিক স্থান আছে এগুলি সম্পর্কে সবাই খুব ভালো ভাবেই জানতে পারবে ও তারপর শেখানে যেতে পারবে।

ঠিক এভাবে আপনি আপনার শহরের সব কিছুই ক্যামেরাবন্দি করে তা আপনার ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করতে পারেন। এবং এর থেকে ভালো মানের টাকাও ইনকাম করে নিতে পারেন।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • গুগল এডসেন্স

১৪.Trailer and Movie Reactions চ্যানেল

আপনি যদি আমার মত প্রচণ্ড একজন মুভি প্রেমি মানুষ হয়ে থাকেন, তাহলে এই আইডিয়া টা আপনার অবশ্যই ভালো লাগবে। আপনি যে সকল পুরাতন মুভি বা ওয়েব সিরিজ দেখেছেন। সেই মুভি বা ওয়েব সিরিজ সম্পর্কে আপনার কি মতামত বা আপনি যখন সেই মুভি বা ওয়েব সিরিজ গুলি দেখেছেন তখন আপনার Reactions কেমন ছিল, এগুলার উপর ভিডিও তৈরি করে আপনার চ্যানেলে আপলোড করতে পারেন।

এবং রিলিজ হওয়া মুভি Movie and Trailer দেখে তারপর আপনি আপনার Reactions জানতে পারেন। যেমন Trailer এ আপনার ঠিক কি কি বিষয় গুলি ভালো লেগেছে, বা আর কি হলে আরো বেশি ভালো লাগতে পার, ইত্যাদি, ইত্যাদি।

চ্যানেল কিভাবে মনিটাইজ করবেন?

  • গুগল এডসেন্স

ইউটিউব চ্যানেল উদাহরণঃ-

  • Filmi Indian
  • Film Companion Local
  • Pratik Borade

মুল কথাঃ

আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করবার চেষ্টা করেছি ১৪ টি ব্রিলিয়ান্ট ইউটিউব চ্যানেল আইডিয়া সম্পর্কে। এই আইডিয়া গুলিকে কাজে লাগিয়ে সদ্য সদ্য আমরা অনেকেই উঠে যেতে দেখেছি, এবং তাদের অনলাইন ক্যারিয়ার এখন যথেষ্ট স্ট্রং হয়ে গিয়েছে।

তাই আপনার জন্য আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। উপরে বর্ণিত আইডিয়া গুলি থেকে আপনি যে কোন একটি আইডিয়া পিক করে আপনার ইউটিউব ক্যারিয়ার শুরু করে দিতে পারেন। এবং এই আর্টিকেল রিলেটেড কোন প্রস্ন বা মতামত থাকলে নিচে কমেন্ট সেকশনে তা জানতে পারেন।

আপনিও কি আমার মত টেক পোকা? আপনারও কি নতুন নতুন টেকনোলজি বিষয়ে জানতে ভালো লাগে? তাহলে বন্ধু আপনি একদম সঠিক জায়গাতে এসেছেন, কেননা আমি এখানে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন টেক বিষয় গুলি নিয়ে আলোচনা করি, এবং টেকনোলজির জটিল টার্ম গুলিকে আপনাদের সামনে জলের মত সহজ করে উপস্থাপন করার চেষ্টা করি

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

>